ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

পেছাল দি মারিয়ার সফর, আসতে পারেন মেসিও

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
পেছাল দি মারিয়ার সফর, আসতে পারেন মেসিও

আগামী মে মাসে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য আনহেল দি মারিয়ার। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতেও সফর করার কথা ছিল তার।

ভারতের নির্বাচনের কারণে সেই সফর পেছানো হয়েছে।  

মাস দুয়েক পর জুলাইয়ের শেষ অথবা আগস্টের প্রথম সপ্তাহে আসতে পারেন দি মারিয়া। আজ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে সৌজন্যে সাক্ষাতের পর ভারতীয় ক্রীড়া উদ্যোক্তা শতদ্রু দত্ত এমন তথ্য জানান। সেই সঙ্গে বিশ্বফুটবলের অন্যতম সেরা তারকা লিওনেল মেসিকেও বাংলাদেশে আনার চেষ্টা চলছে। দি মারিয়ার আসার তথ্য নিশ্চিত হলেও মেসির সফর এখনও পরিকল্পনা পর্যায়েই আছে।

দি মারিয়ার সফর পেছানোর কারণ নিয়ে শতদ্রু বলেন, ‘বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও আসার কথা ছিল। ভারতে ওই সময় নির্বাচন, তাই বাংলাদেশের সফরটিও পিছিয়েছে। ’ নতুন সময় জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে প্যারিস অলিম্পিক শুরু হবে। তবে সেই সময় সফর আদৌ সম্ভব কিনা এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘ওই সময়টি তিনিই দিয়েছেন। আমি যতটুকু জানি সে কোপা খেলবে, এরপর অবসর নেওয়ার কথা। ’

আগস্ট মাস বাংলাদেশের শোকের। তাই যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে আনার অনুরোধ করেছেন। শতদ্রু সেই চেষ্টা করবেন বলেও জানিয়েছেন, ‘আগস্ট বাংলাদেশের শোকের মাস। মন্ত্রী বিষয়টি জানিয়েছেন। জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে আনতে সমস্যা হবে না মনে করি। ’

আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ছিলেন ভারতের ক্রীড়া উদ্যোক্তা শতদ্রু দত্ত। তিনিই মূলত আগামী বছর মেসিকে বাংলাদেশের আনার বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। পরবর্তীতে ক্রীড়ামন্ত্রী মেসি প্রসঙ্গে বলেন, ‘তারা বলেছে মেসিকেও আনতে পারে। ’ ভারতীয় ক্রীড়া উদ্যোক্তা শতদ্রু অবশ্য সরাসরি মেসির কথা না বলে ওই রকম ইঙ্গিতই দিয়েছেন, ‘মার্টিনেজ, রোনালদিনহো এসেছে। দি মারিয়াও আসবে। সামনে আরও বড় কেউ বাংলাদেশে আসতে পারে। ’

মেসির বিষয়টি প্রায় পুরোটাই কথার পৃষ্ঠে কথা। সেটি অবশ্য মন্ত্রী পুনরায় স্পষ্ট করে দিয়েছেন, ‘তারা বলেছে, যেহেতু অন্যরা আসছে মেসিও আসতে পারে। তবে অনেক বিষয় থাকে এখানে। ’

ভারতীয় ক্রীড়া উদ্যোক্তা শতদ্রু দত্ত গত বছর আর্জেন্টিনার গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ ও ব্রাজিল কিংবদন্তি রোনালদিনহোকে এনেছিলেন। দুটি সফরই ছিল অব্যবস্থাপনায় ভরপুর ও নানা প্রশ্নবিদ্ধ। এবার সেই রকম না হওয়ার অঙ্গীকারও শোনা গেল তার কণ্ঠে, ‘এবার ফুটবলার ও মিডিয়া সবার জন্য আলাদা ব্যবস্থা থাকবে। অনুষ্ঠান থাকবে দর্শকদের জন্যও। ’

দি মারিয়ার সফরে এমন কিছু না হওয়ার আশ্বাস পাপনেরও, ‘আগের বিষয় নিয়ে আর মন্তব্য নেই। তবে এখন যেহেতু তারা মন্ত্রণালয়ে এসেছে, তাই আমরা তাদের প্রস্তাবনা দিতে বলেছি। দেখি তারা কি দেয়, এরপর আমরাও কিছু কন্ডিশন দিতে পারি যেহেতু আমাদের সহযোগিতা চেয়েছে। ’

বাংলাদেশ সময়: ২১০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
এআর/আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।