ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ফুটবল

মেসির চাপ দলের বাকিরা ভাগ করে নিচ্ছে দেখে খুশি বাতিস্তুতা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৭, ২০২২
মেসির চাপ দলের বাকিরা ভাগ করে নিচ্ছে দেখে খুশি বাতিস্তুতা

আর্জেন্টিনার সমর্থকরা দীর্ঘদিন ধরে লিওনেল মেসিকে ঘিরে বিশ্বকাপ ঘরে তোলার স্বপ্ন দেখছে। বিপুল প্রত্যাশার চাপ এখনও পূরণ করতে পারেননি আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

আরও এক বিশ্বকাপ যখন দরজায় কড়া নাড়ছে, তখন ক্যারিয়ারের অন্তিম পর্বে পা রেখেছেন পিএসজি তারকা। এবারও তাকে ঘিরেই সব আশা আলবিসেলেস্তেদের। তবে এবারের আর্জেন্টিনা দলটি যেন একটু আলাদা।  

বর্তমান আর্জেন্টিনা দলটিতে এখনও মেসিই মুখ্য ভূমিকা পালন করছেন। কিন্তু দলের বাকিরাও যেন ধীরে ধীরে অধিনায়কের চাপ নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিতে শুরু করেছেন। এ কারণেই এবারের আর্জেন্টিনা দলটিকে নিয়ে খুশি কিংবদন্তি স্ট্রাইকার গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা। মেসি যে 'যিশু খ্রিস্ট' নন, তা-ও যে আর্জেন্টাইনরা বুঝতে পেরেছেন, তা ভেবেও স্বস্তি পাচ্ছেন একসময়ের মাঠ কাঁপানো স্ট্রাইকার।  

সাতবারের ব্যালন ডি'অর জয়ীকে প্রায়ই 'ভিনগ্রহের ফুটবলার' তকমা দিয়ে যে মানসিক চাপে ফেলা হয় সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন বাতিস্তুতা। তিনি মনে করিয়ে দেন, সবচেয়ে সেরাদেরও মাঝে মাঝে সহায়তার দরকার হয়। 'লা ন্যাসিওন'-কে বাতিস্তুতা বলেন, 'দীর্ঘদিন ধরেই মেসির ওপর সব দায়িত্ব চাপিয়ে দিয়েছি; প্রথমে আমরা তাকে যিশু খ্রিস্ট বানিয়ে দিলাম, পরে আমার ব্যর্থতার দায় তার ঘাড়ে চাপিয়ে দিলাম। সে অনেক বড় মাপের খেলোয়াড়, কিন্তু যিশু খ্রিস্ট নয়। এসব করে আমরা অনেক ক্ষতি করে ফেলেছি। '
'এখন পরিস্থিতি বদলে গেছে। এখনকার দলটিতে মেসি বেশ স্বাধীনতা অনুভব করছে। অবশ্যই, আমি বল পেলে মেসিকে দেবো। যদি দুজন সতীর্থ থাকে, আমি সম্ভব হলে মেসিকে দেবো। কিন্তু যদি সে রক্ষণের দেয়ালের পেছনে থাকে, তাহলে বল অন্যজনকে দিতে হবে। বর্তমান দলটি ব্যাপারটা বুঝতে শিখেছে। এজন্য তারা সবাই ভালো খেলছে। মেসিও বোকা নয়। অন্যরা যদি সবকিছুর জন্য আপনার ওপর নির্ভর করে, তাহলে সেটা কতটা চাপের ব্যাপার বুঝতেই পারছেন। কিন্তু যদি সবাই মিলে করা হয়, তাহলে বিষয়টা পুরো আলাদা। '

'আপনি মেসিকে জিজ্ঞাসা করে দেখুন তো, সে পাপ গার্দিওলার অধীনে বার্সেলোনায় খেলতে চায়, যেখানে সে বড় মাপের সব খেলোয়াড়দের সঙ্গে সব ভাগ করে নেবে; নাকি একাই সব গোল করতে চায়? এজন্য এখনকার জাতীয় দলটির খেলোয়াড়দের ব্যক্তিত্ব দেখে মেসি নিশ্চয় খুশি। আমি তাদের ভালোবাসি। '

মেসি ২০০৫ সালের পর এই প্রথম ব্যালন ডি'অরের সংক্ষিপ্ত তালিকায় স্থান পাননি। পিএসজিতে তার প্রথম মৌসুমটা প্রত্যাশার ধারেকাছেও ছিল না। কিন্তু জাতীয় দলের জার্সিতে ৩৫ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড যেন সোনালী সময় কাটাচ্ছেন। এরইমধ্যে আর্জেন্টিনার জার্সিতে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডে তিনি পেছনে ফেলে দিয়েছেন বাতিস্তুতাকে। ১৬২ ম্যাচ খেলে মেসির বর্তমান গোল ৮৬টি। জাতীয় দলের জার্সিতে দারুণ ফর্মের কারণেই কাতার বিশ্বকাপে মেসি ভালো করবেন বলে বিশ্বাস বাতিস্তুতার। এমনকি অন্য কারো সাথে মেসির তুলনা করতেও আপত্তি তার।  

বিশ্বকাপ মেসির সম্ভাবনা নিয়ে তিনি বলেন, 'সে আরও অনেক কিছু করবে। কারণ সে ভিনগ্রহের। তার সামর্থ্য অন্য কারো সঙ্গে তুলনীয় নয়। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোও তার মতো মানসিক কারণে বাকিদের চেয়ে এগিয়ে, সেই সঙ্গে প্রচণ্ড পরিশ্রম তো আছেই। তার মতো আরও অনেকেই আছে, কিন্তু তার ইগোও আছে। সবারই আছে। যার ইগো নেই, তার কিছুই নেই। ম্যারাডোনা ও পেলেরও ইগো ছিল। মেসি বিশ্বকাপে ভালো করবে। এটা তার শেষ বিশ্বকাপ বলে নয়, এবার তার পাশে ভালো একটা দল পাচ্ছে সে। '

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৭, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa