ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

প্রিন্স মাহিদল অ্যাওয়ার্ড পেলেন আইসিডিডিআরবির ক্লেমেন্স

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৮
প্রিন্স মাহিদল অ্যাওয়ার্ড পেলেন আইসিডিডিআরবির ক্লেমেন্স

ঢাকা: ওষুধ ও জনস্বাস্থ্যে অনন্য অবদানের জন্য থাইল্যান্ডের রাজপরিবারের বার্ষিক সম্মাননা ‘প্রিন্স মাহিদল অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ পেয়েছেন আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশের (আইসিডিডিআর,বি) নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক জন ডি ক্লেমেন্স।

ট্যাবলেটের মতো খাওয়ার যোগ্য একমাত্র নিরাপদ, কার্যকরী ও সাশ্রয়ী কলেরা টিকা আবিষ্কারের স্বীকৃতি হিসেবে জন ক্লেমেন্স এবং ন সুইডিশ ইমিউনোলজিস্ট প্রফেসর ইয়ান হোমগ্রেনকে এ পুরস্কারে ভূষিত করেছে প্রিন্স মাহিদল অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডেশন। থাইল্যান্ডের রাজকুমারী মহাচক্রী সিরিনধরন এই ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট।

এ বিষয়ে প্রিন্স মাহিদল অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডেশনের তরফ থেকে বলা হয়, ‘এ দু’জন ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে বিশ্বের একমাত্র মুখে খাওয়ার নিরাপদ, কার্যকরী ও সাশ্রয়ী কলেরা টিকা আবিষ্কার, মূল্যায়ন এবং প্রয়োগ নিয়ে কাজ করেছেন। এই টিকা আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, হাইতি এবং এশিয়াতে কলেরা নিয়ন্ত্রণ প্রচেষ্টায় বৈপ্লবিক অগ্রগতি এনেছে এবং অসংখ্য সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জীবন রক্ষা করছে। ’

১৯৯২ সালের জানুয়ারিতে ওষুধ ও জনস্বাস্থ্য খাতে অসামান্য অবদানের জন্য থাইল্যান্ডের রাজপরিবার এ পুরস্কার প্রবর্তন করে।

পুরস্কার প্রাাপ্তিতে আইসিডিডিআর,বি নির্বাহী পরিচালক জন ডি ক্লেমেন্স বলেন, ‘প্রিন্স মহিদল পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়ে সম্মানিতবোধ করছি। আইসিডিডিআর,বি কলেরার টিকার প্রবর্তন করেছে এবং তারই নির্বাহী পরিচালক হিসেবে কার্যরত অবস্থায় এই পুরস্কার প্রাপ্তি আমার কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। আমি এ কাজের ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। ’

পুরস্কারে একটি সম্মানসূচক পদক, সনদপত্র এবং এক লাখ মার্কিন ডলার দেওয়া হয়। আগামী জানুয়ারিতে রাজকুমারী মহাচক্রী আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৮
এমএএম/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa