ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

কৃষি

নলডাঙ্গায় রোপা আমন ধান-পেঁয়াজ বীজ পেলেন ৬০০ প্রান্তিক কৃষক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৬ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০২৩
নলডাঙ্গায় রোপা আমন ধান-পেঁয়াজ বীজ পেলেন ৬০০ প্রান্তিক কৃষক

নাটোর: নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় ৬০০ জন প্রান্তিক কৃষকের মধ্যে রোপা আমন-পেঁয়াজের বীজ এবং সারসহ বিভিন্ন কৃষি উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার (২৪ জুন) দুপুর ১২টার সময় উপজেলা পরিষদ চত্বরে উপজেলা কৃষি বিভাগের উদ্যোগে এ উপকরণ বিতরণ করা হয়।

 

এর আগে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এ উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাকিবুল হাসানের সভাপতিত্বে এসময় ভার্চ্যুয়ালি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নাটোর-২ (সদর ও নলডাঙ্গা) আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- সংসদ সদস্যের প্রতিনিধি ও ব্যক্তিগত সহকারী প্রভাষক আকরামুল ইসলাম স্বপ্নীন, উপজেলা পরিষদ প্যানেল চেয়ারম্যান-১ শিরিন আক্তার, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম সরদার, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুস শুকুর, উপজেলা কৃষি অফিসার ফৌজিয়া ফেরদৌস, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কিশোয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মো. আমিনুল ইসলাম হাদু প্রমুখ। মতবিনিময় শেষে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার উপকরণ বিতরণ করেন অতিথিরা।

নলডাঙ্গা উপজেলা কৃষি অফিসার ফৌজিয়া ফেরদৌস বাংলানিউজকে জানান, ২০২২-২৩ অর্থবছরে গ্রীষ্মকালীন পেঁয়াজ ও রোপা আমন প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় উপজেলার ৪০০ জন কৃষককে রোপা আমন (উপসী জাত) ধান বীজ, ১০০ জন কৃষককে হাইব্রিড জাতের ধান বীজ ও ১০০ জন কৃষককে পেঁয়াজ বীজ দেওয়া হচ্ছে।

এর মধ্যে ৪০০ কৃষকের প্রত্যেককে ৫ কেজি রোপা আমন বীজ, ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার আর ১০০ কৃষককে ২ কেজি করে হাইব্রিড জাতের ধান বীজ এবং ১০০ জন কৃষকের প্রত্যেককে ১ কেজি করে পেঁয়াজের বীজ, ১০ কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার, পরিমাণ মতো সূতলী, পলিথিন ও বালাইনাশকসহ নগদ দুই হাজার আটশ টাকা দেওয়া হয়।  

তিনি বলেন, এসব উপকরণ কৃষকরা যথাযথ ব্যবহার করলে কৃষিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে এবং কৃষকরা লাভবান হবেন। কৃষি অর্থনীতিতে সমৃদ্ধি বয়ে আনবে।

বাংলাদেশ সময়:২১০০ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০২৩

আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।