ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

কৃষি

বগুড়ায় আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৯ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২৩
বগুড়ায় আধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ

বগুড়া: বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে রোপা আমন ধানের চারা রোপণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই)  উপজেলার খরনা ইউনিয়নের জগন্নাথপুর এলাকায় ১৫০ বিঘা জমিতে সমলয় কৃষি সম্পসারণ অধিদপ্তর এ চারা রোপণ কার্যক্রমের আয়োজন করে।

খরিপ ২০২২-২৩ মৌসুমে রোপা আমন উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে সমলয় চাষাবাদ প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর এ প্রদর্শনী বাস্তবায়ন করছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিসেবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক সোহরাব হোসেন ছান্নু ও বগুড়া কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. মতলুবর রহমান।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) শানজিদা মুস্তারীর সভাপতিত্বে এবং উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আমিনা খাতুনের ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হেফাজত আরা মিরা, শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার কৃষিবিদ আহসান শহীদ সরকার, অতিরিক্ত উপ-পরিচালক ফারহানা, অতিরিক্ত উপপরিচালক (উদ্ভিদ সংরক্ষণ) মশিদুল হক, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার ফারহানা আফরোজ, মেহেদী জাহান, খরনা ইউপি চেয়ারম্যান ভিপি সাজেদুর রহমান শাহীন, খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ এবং জেলা ও উপজেলা কৃষি অফিসের কর্মকর্তারা।

জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, দেশে দিন দিন জমির পরিমাণ কমছে, মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। সনাতন নিয়মে চাষাবাদ করলে খাদ্য উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। টেকসই উন্নয়ন ও স্মার্ট কৃষিকে এগিয়ে নিতে কৃষিতে আরও উন্নত প্রযুক্তিতে কৃষি চাষাবাদ প্রয়োজন। আর সে কারণেই সরকার কৃষি সম্প্রসারণ অফিসের মাধ্যমে নানামুখী কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এক টুকরো জমিও খালি রাখা যাবে না। আমাদের কৃষি জমির যথাযথ ব্যবহার করতে হবে। রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে কম খরচে খুব দ্রুত ধানের চারা রোপণ ও ফসল উৎপাদন করা সম্ভব।

আলোচনা সভা শেষে জেলা প্রশাসক ও অতিথিরা রাইস ট্রান্সপ্লন্টারের মাধ্যমে মাঠে রোপা আমন ধানের চারা রোপণ করা দেখেন। সেখানে উপস্থিত কৃষদের সমলয় পদ্ধতিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারে রোপা আমন ধান চাষাবাদের জন্য উৎসাহিত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৬ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২৩
কেইউএ/এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।