ঢাকা, শনিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

কৃষি

‘পেঁয়াজের বড়ই ঝাঁজ বাহে’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
‘পেঁয়াজের বড়ই ঝাঁজ বাহে’ পেঁয়াজ। ছবি: বাংলানিউজ

বদরগঞ্জ (রংপুর): মনছুর আলি (৬৫)। বাড়ি রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার গোপিনাথপুর ইউপির মুচিরহাট এলাকায়।  এই হাটে এসেছেন কাঁচাবাজার করতে।

সবে বাজারে আসতে শুরু করা শীতকালীন সবজির দাম এমনিতেই বেশ চড়া। তারউপর পেঁয়াজের দাম শুনে তিনি তো হতবাক।

যৎসামান্য পেঁয়াজ কিনে রওয়ানা হলেন বাড়ির পথে।

সংবাদ কর্মী পরিচয় পেয়ে আক্ষেপ করে বললেন, পিঁয়াজের কেমন এত দাম বাহে, মোর বড় সংসার, বাড়িত সপ্তাহে পিঁয়াজ নাগে কমপক্ষে ৫ সের। দাম শুনি মুই পিঁয়াজ নিনু আধ সের। এখোন ক্যানকা করি বাকি দিনগুল্যা চলবে।

তিনি বলেন, দিন দিন যদি পেঁয়াজের দাম বাড়তেই থাকে তাইলে মানুষ পিঁয়াজ কিনবে কেমন করি, পেঁয়াজের বড়ই ঝাঁজ বাহে।

সরেজমিন বদরগঞ্জ বাজার ঘুরে কথা হয় পেঁয়াজের পাইকারি ব্যবসায়ী আকবার আলির সাথে। তিনি জানান, বতর্মানে দেশি পিঁয়াজের পাইকারি দাম কেজি প্রতি ৭৬-৮৫ টাকা, ইন্ডিয়ান পিঁয়াজ ৫৬-৬০ টাকা।

তার দাবি, মোকাম থেকে পেঁয়াজের আমদানি কম হওয়ায় দাম চড়া।

খুচরা ব্যবসায়ী শাহিন মিয়া বলেন, দেশি পিঁয়াজ কেজি প্রতি ৮০-৯০ টাকায় এবং ইন্ডিয়ান পিঁয়াজ ৬০-৬৫ টাকায় বিক্রি করছি।  

শুধু যে পিঁয়াজের দামই বেশি তা নয়, মূলা,পাতাকপি, ফুল কপিসহ নানা ধরনের সবজির দামও বেশ চড়া।

বদরগঞ্জ উপজেলার উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কনক রায় বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের এ উপজেলায় সবজি উৎপাদনের পরও দেশের নানা প্রান্ত হতে আমদানি করতে হয়। এ ক্ষেত্রে আমদানি ঘাটতির কারণে পেঁয়াজের দাম চড়া।

তিনি আরো বলেন, কয়েক বছর আমাদের উপজেলার কৃষকরা বাজার মূল্য না পাওয়ায় পিঁয়াজ চাষে অনাগ্রহের কারণেও দামটা একটু চড়া।

অচিরেই পিঁয়াজের দাম সহনশীল পর্যায়ে চলে আসবে বলে আশাবাদি তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৬, ২০১৭
জেডএম/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa