ঢাকা, সোমবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৯, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২৮ সফর ১৪৪৪

কৃষি

পুষ্টির চাহিদা পূরণে জিংক সমৃদ্ধ ধানে আগ্রহ বাড়ছে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২১ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২২
পুষ্টির চাহিদা পূরণে জিংক সমৃদ্ধ ধানে আগ্রহ বাড়ছে

নীলফামারী: পুষ্টির চাহিদা পূরণে জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষে কৃষকদের আগ্রহ বাড়ছে। এই কাজে কৃষক পর্যায়ে উৎসাহ ও সহযোগিতা করছে ওয়ার্ল্ড ভিশন নামে একটি সংস্থা।

ওয়ার্ল্ড ভিশন নীলফামারী এরিয়া কার্যালয় সূত্র জানায়, নীলফামারী পৌরসভা এলাকায় নিয়ামত আলী ও রঞ্জিত রায়, খোকশাবাড়ি ইউনিয়নে কেশব রায় ও নিতাই রায়, টুপামারী ইউনিয়নে আফাজ উদ্দিন ও অনিল রায় এবং পলাশবাড়ি ইউনিয়নে আব্দুল মালেক ও অতুল চন্দ্র রায় এক বিঘা করে জমিতে জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষ করেছেন।  
কৃষকরা জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান ৬৪, ব্রি ধান ৭৪, ব্রি ধান ৮৪ এবং ব্রি ধান ১০০ আবাদ করেছেন প্রদর্শনী প্লট আকারে। ফলও হয়েছে আশাতীত।

এরই মধ্যে সদর উপজেলার খোকশাবাড়ি ইউনিয়নের সাবুল্লীপাড়ায় মাঠ দিবসের আয়োজন করে উন্নয়ন সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক আনোয়ার হোসেন।

ওয়ার্ল্ড ভিশনের সিনিয়র ম্যানেজার স্বপন মণ্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে সদর উপজেলার কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বক্তব্য দেন। অন্যান্যের মধ্যে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা প্রফুল্ল কুমার রায় ও নন্দ কুমার রায়, আয়োজক সংস্থার টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট সৈয়দ ছাগির আহমেদ, প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট প্রকাশ চন্দ্র রায় ও প্রোগ্রাম অফিসার অগাস্টিন মিস্ত্রি এবং কৃষক কেশব রায় ও নিতাই রায় বক্তব্য দেন।

এর আগে নীলফামারী পৌরসভার আলীপাড়ায়, টুপামারী ইউনিয়নের নিত্যানন্দি এবং পলাশবাড়ি ইউনিয়নের তরুণীবাড়ি এলাকায় কৃষক মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়।

সংস্থার প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট প্রকাশ চন্দ্র রায় জানান, জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষ বাড়ানোর লক্ষ্যে উদ্বুদ্ধকরণ বিষয়ক এই মাঠ দিবসের আয়োজন করা হয়। ওয়ার্ল্ড ভিশনের সহায়তায় আট জন কৃষক আট বিঘা জমিতে জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষ করেছেন। তাদের বীজ ধান সরবরাহ এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৯ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২২
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa