ঢাকা, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

অভিজ্ঞদের ওপর নির্ভরশীল উইন্ডিজ দলপতি স্যামি

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৮ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০১৪
অভিজ্ঞদের ওপর নির্ভরশীল উইন্ডিজ দলপতি স্যামি

ঢাকা: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্ব শুরু হয়েছে শুক্রবার। পাকিস্তান-ভারত ম্যাচে ধোনিদের কাছে সাত উইকেটে হেরেছে হাফিজ বাহিনী।

পাকিস্তানের সঙ্গে জিতে কিছুটা এগিয়ে আছে ভারত। আর গত বারের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম দল হিসেবে পেয়েছে ভারতকে। ভারতের সঙ্গে এ পর্যন্ত তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। যার মধ্যে দু’টিতে জয়ী ও একটিতে পরাজিত হয়েছে ক্যারিবীয়রা।

রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে ড্যারেন স্যামির দল। শনিবার মিরপুরে অনুশীলন করে উইন্ডিজ দল। অনুশীলন শেষে সংবাদিকদের সামনে আসেন ক্যারিবীয় দলপতি স্যামি।

দলে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় থাকায় বেশ ফুরফুরে আছেন তিনি। স্যামি বলেন, টি-টোয়েন্টি ফরমেটে সবসময় প্রেসার থাকে। আমাদের টি-টোয়েন্টি নিয়ে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। গত টুর্নামেন্টে আমাদের অনেক সিনিয়র খেলোয়াড় ছিলেন। আমাদের সেরা খেলোয়াড়রা ভালো পারফর্ম করেছিলেন। তার এখনও দলে আছেন এবং পারফরম করে যাচ্ছেন। দল হিসেবে খেলার ইচ্ছে আমাদের। এ সময়টা আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমরা প্রতিটি ম্যাচে গুরুত্বসহকারে দেখছি। রোববার ভারতে সঙ্গে আমাদের প্রথম ম্যাচ। আমাদের চেষ্টা থাকবে কীভাবে ম্যাচ জেতা যায়।

বর্তমান দলটি নিয়েই বেজায় খুশি স্যামি। শুধু তাই নয়, দলে একাধিক ম্যাচ উইনার থাকায় ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে কোনো দুশ্চিন্তা নেই তার।

স্যামি বলেন, এটা খুব ভালো যে আমরা একজনের উপর নির্ভর করি না। আমাদের দলে ৫-৬ জন ম্যাচ উইনার আছেন। এটাও সত্য, এই উইকেটে ভালো স্পিন করানো দরকার। কিন্তু আমি সম্পূর্ণ খুশি আমাদের দল নিয়ে। ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে আমি কোনো চিন্তা করছি না। ছোট ফরমেটের এ ধরণের খেলায় সাধারণত রান আসে প্রথম সারির চার-পাঁচজন ব্যাটসম্যানদের ব্যাট থেকে। আমি শুরুটা ভালো করতে চাই। খুব দক্ষ ব্যাটসম্যানরা উপরের সারিতে আছেন। আর মিডল অর্ডারে আছেন মারলন স্যামুয়েলস, সিমন্স ও ব্রাভোর মতো খেলোয়াড়রা। এরপর আছেন রাসেল এবং আমি। আমরা একজনের উপর নির্ভর করছি না। আমাদের দলটি অনেক তুখোড়, কিন্তু সম্পূর্ণ দলের প্রভাব থাকতে হবে।

দলে যারা বেশি ছক্কা হাঁকান তাদের ছাড়া নিচের সারির খেলোয়াড়রা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জয় এনে দিতে পারে এমনটি মনে করেন স্যামি।

তিনি বলেন, আমাদের যে শুধু ছয়জন সিক্স‍ার আছেন তা নয়। ছয়জনকে আউট হয়ে যাওয়া মানে এই নয় যে, আমরা থেমে যাবো।

বাংলাদেশের কন্ডিশন লারার উত্তরসূরিদের চেনা তাই সেরা খেলা খেলতে চান স্যামি।
তিনি বলেন, আমরা গত কয়েক বছর আগে বাংলাদেশে খেলেছি। তাই এ কন্ডিশন সম্পর্কে জানি। আমরা প্রস্তুত আছি, আমাদের সেরা খেলাটা খেলার চেষ্ট করবো।

প্রস্তুতি ম্যাচে জয়ের ফলে আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে রয়েছে স্যামিদেরম, আমরা সম্পূর্ণ খুশি আমাদের দলের সবাই ভালো আছেন। ফর্মে আছেন। ক্যাম্পে তাদের অবস্থা আগের চেয়ে উন্নত। ইতোমধ্যে আমরা দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি। দু’টিতেই জিতেছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪২ ঘণ্টা, ২২ মার্চ, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa