ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

একজন হিন্দু শেখ এবং ওমানি ক্রিকেট

মিরকান মিশুক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
একজন হিন্দু শেখ এবং ওমানি ক্রিকেট

এক সময় ধুলা ওড়া মাঠে বিদেশি নেভি ক্রু এবং অফিসারদের হাত ধরেই যেখানে ক্রিকেটের যাত্রা শুরু, সেখানেই আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসর। বলা হচ্ছে ওমান ক্রিকেটের কথা।

ওমান ক্রিকেট একাডেমি মাঠের দিকে তাকালে অবশ্য সেই ধুলার মাঠের ইতিহাস বাড়িয়ে বলাই মনে হতে পারে। বাংলাদেশি ক্রিকেটার আশরাফুল হক এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের প্রধান নির্বাহী হিসেবে ২০১২ সালের অক্টোবরে এই আল আমেরাত স্টেডিয়ামের উদ্বোধন করেছিলেন।

বাদামি পর্বতমালার কোল ঘেঁসে সবুজের আভিজাত্য ঘেরা আল  আমেরাত স্টেডিয়াম, ওমান ক্রিকেটের উন্মোচনে যথাযথ মঞ্চই বলতে হয়। ওমান বনাম শ্রীলঙ্কা ম্যাচের মধ্য দিয়েই ছবি-সুন্দর এই মাঠে ব্যাট বলের লাড়াইটা শুরু হয়েছিল। দুধ সাদা ফ্লাড লাইটের আলোয় উদ্ভাসিত সেদিনের সন্ধ্যাটি যেন ছিল ওমানি ক্রিকেটের ভবিষ্যেতের মতোই উজ্জ্বল, আর ওমানি ক্রিকেট ভক্তদের জন্য একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত।

মাঠে সবুজ ঘাসের স্বর্গীয় আভা, বেকড্রপের মাউন্টেনাস ভিউ সাথে টি-২০’র মোজ ইতিহাস ঘাটার সময় কই? তারপরেও ওমানের ক্রিকেটের পথচলার দিকে যদি তাকান তবে একটি নাম সবার আগে উচ্চারিত হবে আর তা হলো শেখ কানাকসি খিমজি।

আজ থেকে আনুমানিক ১৫০ বছর আগে ১৮৭০ সালে গুজরাটি ব্যবসায়ী রামদাশ তার পূর্ববর্তীদের অনুসরণ করে ভাগ্য অন্বেষণে খাদ্য শস্য, চা, মশলা নিয়ে ওমান উপকূলে তার জাহাজ নিয়ে নোঙর করেছিলেন। ওমানের অর্থনীতিতে তেলের ইতিহাস তখনো শুরু হয়নি। তবে ওমান বন্দর সে সময় খুবই ব্যস্ততম বন্দর হয়ে উঠেছিল। সেই সুযোগ এবং সম্ভাবনাকে ব্যবহার করে রামদাস এবং তার সন্তানরা ওমানের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়িক এন্টারপ্রাইজ খিমজি রামদাস গ্রুপ গড়ে তোলেন।

ওমানে প্রাথমিক ব্যবসায়িক সাফল্য রামদাস আর তার পরিবারকে স্থানীয় ওমানিদের সাথে ব্যবসায়িক সম্পর্ক গড়ে তুলতে সাহায্য করেছিল। এটা ছিল এমন একটা সময় যখন সুলতান সা’ইদ রামদাসের পরিবারের কাছ থেকে ব্যবসায়িক পুঁজি ধার করতেন। সুলতান সা’ইদ হলেন ওমানের লিজেন্ডারি সুলতান, কাবুজের বাবা। পরবর্তীতে কাবুজ সুলতান হলে রামদাশের নাতি কানাকসি খিমজিকে সন্মান সূচক নাগরিকত্ব দান করেন।

পারিবারিক ভাবে ক্রিকেট অনুরাগী কানাকসি খিমজি হলেন ওমান ক্রিকেট বোর্ডের ফাউন্ডিং চেয়ারম্যান। ১৯৭৯ সালে তার হাত ধরেই ওমান ক্রিকেটের যাত্রা শুরু। আজকের ওমান ক্রিকেটের যে অবয়ব তার জন্য খিমজি’র অবদান সবচেয়ে বেশি। ওমান ক্রিকেট একাডেমি, আমেরাত স্টেডিয়াম তার ভিশনেরই একটি অংশ। ওমান ক্রিকেটে তার এই অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১১ সালে আইসিসি তাকে লাইফ টাইম সার্ভিস অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত করে আর সুলতান কাবুজের কাছে পেয়েছিলেন ‘শেখ’ উপাধি।  

শেখ বা শাইখ সাধারণত একটি মুসলিম উপাধি যা নেতা, শিক্ষক বা সন্মানীত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়।  কানাকসি খিমজিই হচ্ছেন পৃথীবির একমাত্র হিন্দু যার রয়েছে ‘শেখ’ উপাধি। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে খিমজি মারা গেলে তার ছেলে পঙ্কজ খিমজি তার স্থলাভিষিক্ত হন। তবে কানাকসি খিমজি মারা যাওয়ার আগেই ওমান ক্রিকেট একাডেমি মাঠ আইসিসি টেস্ট ভেন্যু হিসেবে স্বীকৃতি পেয়ে যায়।

আরব আমিরাতের সাথে এবারের টি-২০ বিশ্বকাপ সহ-আয়োজক হিসেবে থাকছে ওমান, যেখানে দেশটির ক্রিকেটের প্রধান বিজ্ঞাপন হিসেবে থাকবে আল আমেরাত স্টেডিয়াম। প্রথম পর্বে গ্রুপ ‘বি’ এর ম্যাচগুলো আয়োজিত হবে এখানে। এই রকম বড় টুর্নামেন্টের সহ-আয়োজক হয়ে যাওয়া ওমানের ব্যাক-রুম প্রফেশনালিজমের বড় উদাহরণ, তবে মাঠের খেলায় ওমান যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই এই টুর্নামেন্টে জায়গা করে নিয়েছে।

২০০০ সালে আইসিসি এফিলিয়েট মেম্বারশিপ ২০১৪ সালে অ্যাসোসিয়েট মেম্বারশিপ, ২০১৬ সালেও আইসিসির ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের  ডিভিশন-৫ এ খেলে আসছিল ওমান। অনেকটা চমক দেখিয়ে সেবছরই ভারতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয় তারা ।  যেখানে আয়ারল্যান্ডে বিপক্ষে ডেব্যু ম্যাচেই জয় তুলে নেয় ওমান। ধারাবাহিক অগ্রগতির মাধ্যমে ২০১৯ সালে ওডিআই স্বীকৃতি আদায় করে নেয়।  তাদের এই হঠাৎ উত্থান একমাত্র আফগানিস্তানের সাথেই তুলনা করা যায়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa