ঢাকা, শুক্রবার, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

সৎ মাকে হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০২২
সৎ মাকে হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম: ফটিকছড়ি থানার সৎ মাকে হত্যার অভিযোগে মো. বেলাল হোসেন নামের এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (১৭ আগস্ট) চট্টগ্রামের অতিরিক্ত দায়রা জজ মোহাম্মদ আবু হান্নানের আদালত এই রায় দেন।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মো.বেলাল হোসেন, ফটিকছড়ি উপজেলায় ভুঁজপুর হেয়াঁকো বাংলা পাড়ার আমিনুর রহমানের ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৭ সালে ৭ অক্টোবর  সকাল সাড়ে ১০ টায় ফটিকছড়ি থানা ভুঁজপুর হেয়াঁকো বাংলা পাড়া বেলাল হোসেন তার সৎ মা রহিমা খাতুনকে কুপিয়ে মারাত্মক যখম করে। রক্ষাক্ত অবস্থায় রহিমা খাতুনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। একই দিন বিকেলে তিনটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রহিমা খাতুনের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় একইদিন ফটিকছড়ি থানায় বেলাল হোসেনের বিরুদ্ধে তার পিতা আমিনুর রহমান মামলা দায়ের করেন। ২০০০ সালের ১০ জানুযারি আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। আদালতে ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন।  

 সরকারি কৌঁসুলি বিশ্বজিৎ দাশ বাংলানিউজকে বলেন, মামলার অভিযোগ পত্রের ২০ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন আদালত।

১৩ জনের সাক্ষ্য ভিত্তিতে আদালত মো. বেলাল হোসেন নামের এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও দশ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৭, ২০২২
এমআই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa