ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

এঅ্যান্ডইকে বাংলাদেশ থেকে পোশাক সোর্সিং করার আহ্বান বিজিএমইএ-এর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
এঅ্যান্ডইকে বাংলাদেশ থেকে পোশাক সোর্সিং করার আহ্বান বিজিএমইএ-এর

ঢাকা: বিজিএমইএ নেতারা দেশের তৈরি পোশাক খাতের অন্যতম বৃহত্তম বিদেশি ক্রেতা আমেরিকান অ্যান্ড ইফার্ডকে (এঅ্যান্ডই) বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক, বিশেষ করে মূল্য সংযোজিত পণ্যের সোর্সিং বাড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন।   

বুধবার এঅ্যান্ডই বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক অ্যাঞ্জেলো লেনেজের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল উত্তরায় বিজিএমইএ কমপ্লেক্সে বিজিএমইএ  সভাপতি ফারুক হাসানের সঙ্গে দেখা করতে এলে এই আহ্বান জানানো হয়।

 

তারা পোশাক শিল্পখাতের বর্তমান পরিস্থিতি, বৈশ্বিক বাজারের চাহিদা ও প্রবণতা, বর্তমান চ্যালেঞ্জ ও সুযোগসহ পোশাক শিল্প সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

বৈঠকে তারা বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের বর্তমান ব্যবসায়িক প্রেক্ষিত, সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জ এবং সমস্যা সমাধানে পোশাক শিল্প কীভাবে কাজ করছে, তা নিয়ে আলোচনা করেন।  

টেকসই প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করার জন্য পণ্য বৈচিত্র্যের ওপর শিল্পের ক্রমবর্ধমান নজরদানের বিষয়টি তুলে ধরে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, বাংলাদেশের পোশাক কারখানাগুলো দক্ষতা উন্নয়ন এবং উৎপাদনশীলতা বাড়াতে প্রযুক্তির মানোন্নয়নে বিনিয়োগ করার পাশাপাশি মূল্য সংযোজিত পণ্য বেছে নিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, প্রিমিয়ামমানের ইন্ডাস্ট্রিয়াল এবং কনজিউমার স্যুয়িং থ্রেড, এমব্রয়ডারি থ্রেড এবং টেকনিক্যাল টেক্সটাইল প্রস্তুতকারক ও পরিবেশক হিসেবে এঅ্যান্ডই বাংলাদেশে তার ব্যবসা সম্প্রসারণ করতে পারে এবং পোশাক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে অংশীদারিত্ব জোরদার করতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমরা জেনে আনন্দিত যে এঅ্যান্ডই চট্টগ্রামে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করেছে, যা পোশাক খাতের চাহিদা পূরণ করতে সাহায্য করবে। আমরা আশা করি এঅ্যান্ডই পোশাক কারখানার জন্য আরও মানসম্পন্ন পণ্য আনবে যা উৎপাদন প্রক্রিয়ায় দক্ষতা বাড়াবে।

বৈঠকে এঅ্যান্ডই বাংলাদেশের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আরেফিন এবং পরিচালক- জিআরএস এশিয়া অঞ্চল এইচ.এস.এম. ইফতেখার হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২০৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
এমকে/এসআইএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।