ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

যৌন হয়রানির অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি সাবেক উপাচার্য শাহজাহানের

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
যৌন হয়রানির অভিযোগ ভিত্তিহীন দাবি সাবেক উপাচার্য শাহজাহানের

গোপালগঞ্জ: গৃহকর্মীর যৌন হয়রানির অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি করে সস্ত্রীক সংবাদ সম্মেলন করেছেন গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব) ড. মো. শাহজাহান।  

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের বিজ্ঞান অনুষদের ক্লাসরুমে  এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

ড. মো. শাহজাহান লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘আমি সবসময় অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার থেকেছি এবং প্রতিবাদ করেছি। ইতোপূর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক একজন উপাচার্যের (নাম প্রকাশ করেননি) বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি-স্বজনপ্রীতির বিরোধিতা করে বিশ্ববিদ্যালয়কে কলঙ্কমুক্ত করতে সচেষ্ঠ ও সক্ষম হয়েছি। বর্তমানে সেই সাবেক উপাচার্যের কিছু সুবিধাবাদী চক্র আমার ভারপ্রাপ্ত (রুটিন দায়িত্ব) ভাইস চ্যান্সেলরের দায়িত্ব পালনের সময় অবৈধ সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছে এবং এখনও হচ্ছে। বর্তমানে আমি প্রশাসনিক বিভিন্ন কাছে ভাইস চ্যান্সেলর মহোদয়কে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করে যাচ্ছি। আমার কর্মের প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি মহল বিভিন্ন সময়ে ভিত্তিহীন অভিযোগ উত্থাপন করে আমার মান-সম্মান ক্ষুন্ন করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘এরই ধারাবাহিকতায় সাম্প্রতি আমার বিরুদ্ধে এক গৃহকর্মীকে যৌন হয়রানির বিষয় উল্লেখ করে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ উত্থাপন করা হয় এবং বিভিন্ন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। যা আমার জন্য অত্যন্ত অমর্যাদাকর এবং সামাজিক ও পারিবারিকভাবে সম্মানহানির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই প্রকাশিত খবরের বিষয়ে আমার অবস্থান ব্যাখ্যা করা প্রয়োজন বলে অনুধাবন করছি। ’
 
তিনি আরো বলেন, ‘ষড়যন্ত্রমূলক এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এমন অভিযোগ করা হয়েছে। আমি তীব্রভাবে এই ভিত্তিহীন অভিযোগের নিন্দা জ্ঞাপন করছি এবং সকল পক্ষকে যথাযথ যাচাই-বাছাই করে খবর প্রকাশের অনুরোধ করছি। ’
 
এ ব্যাপারে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নেবেন জানিয়ে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত করে সত্য উদঘাটনের দাবি জানিয়েছি।

এ সময় ড. মো. শাহজাহানের স্ত্রী পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক মোসাম্মৎ হালিমা খাতুন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও আইন অনুষদের ডিন ড. মো. রাজিউর রহমানসহ বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

গত বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) মো. ড. শাহজাহান এর বাসার সাবেক গৃহকর্মী তার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেন।  

>>>বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa