ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

হালকা বৃষ্টি স্বস্তি নামালো নগরীতে 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৬ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০১৮
হালকা বৃষ্টি স্বস্তি নামালো নগরীতে  রাজধানীর বারিধারায় স্বস্তির বৃষ্টি। ছবি: জনি সাহা

ঢাকা: বর্ষণের মাস হলেও শ্রাবণে তীব্র তাপদাহে জনজীবন যখন ওষ্ঠাগত, তখন রাজধানীকে ভিজিয়ে দিলো এক পশলা বৃষ্টি। আর এই বৃষ্টিই অসহনীয় তাপমাত্রার লাগাম টেনে বুলিয়ে দিলো যেন স্বস্তির পরশ।

শুক্রবার (২০ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত কড়া রোদের পর বিকেলের দিকে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর, আগারগাঁও, বারিধারা ও উত্তরা এলাকায় বৃষ্টি নামে। মিরপুরের কয়েকটি স্থানেও ঝাপটা দিয়ে যায় হালকা বৃষ্টির পশলা।

ঢাকার বাইরে পঞ্চগড়সহ একাধিক জেলায় বৃষ্টির খবর মিলেছে। ফলে সেসব এলাকায়ও জনজীবনে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় হয়েছে বৃষ্টি।  ছবি: বাংলানিউজ
শ্রাবণ বৃষ্টিপাতের ভরমৌসুম হলেও গত ক’দিন যেন গ্রীষ্মকে ফিরিয়ে আনছিল। ক’দিনের খরতাপের ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার (১৯ জুলাই) ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৭ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর দেশের সর্বোচ্চ ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় কুড়িগ্রামের রাজারহাটে।  

এই তাপদাহ বজায় থাকে শুক্রবারেও। বিকেল পর্যন্ত খবরে, কাঠফাটানো তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ছিল নীলফামারীর সৈয়দপুরে। সেখানে বিকেল ৩টা নাগাদ ৩৯ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়, যা বিগত ৩ বছরে সৈয়দপুরের সর্বোচ্চ।

** তীব্র তাপদাহের পর স্বস্তির বৃষ্টি
আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ বলেনে, আজকে (বৃহস্পতিবার) ঢাকার বেশ কিছু স্থানে বৃষ্টিপাত হয়েছে। শনিবার ও রোববার (২১ ও ২২ জুলাই) আরও বেশি বৃষ্টিপাত হবে। তখন তাপমাত্রা আরও কমে যাবে। বঙ্গোপসাগরের গভীরে সুস্পষ্ট লঘু চাপ আছে, এটা যতোই উপকূলে আসবে ততোই বৃষ্টিপাত বাড়বে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৮ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০১৮
এমআইএস/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।