ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩ মহররম ১৪৪৪

ফুটবল

৩-১ ব্যবধানে কোস্টারিকার স্বপ্নের জয়

ওয়ার্ল্ড কাপ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২৫৬ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০১৪
৩-১ ব্যবধানে কোস্টারিকার স্বপ্নের জয় ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: প্রথমার্ধে ১-০ গোল ব্যবধানে পিছেয়ে থাকে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করতে নেমে যেন বদলে যাওয়া কোস্টারিকাকে পায় সারা ফুটবল বিশ্ব। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের মোট ৫৪ ও ৫৭ মিনিটে পরপর দু'টি অসাধারণ গোলে দলকে এগিয়ে নেন কোস্টার তারকা জোয়েল ক্যাম্পবেল ও অস্কার ডুয়ার্ট।

এতে তাদের ব্যবধান দাঁড়ায় ২-১ গোলে।

এরপর তাদের জয়ের ব্যবধান আরো বাড়াতে খেলা শেষের ঠিক ৬ মিনিট আগে কোস্টারিকার গোল উৎসবে মার্কোস উরেনা অংশগ্রহণ করলে শূন্যে ভাসেন কোস্টারিকার সব সমর্থকরা।

মার্কোসের অসাধারণ কিকে উরুগুয়ের গোলরক্ষককে এক প্রকার বোকা বানিয়ে বল জালে পাঠিয়ে তাদের কাটা গায়ে নুনের ছিটা মারেন মার্কোস উরেনা।

আর এ জয়ে ফিফা র‌্যাংকিয়ে ২৮ নম্বর দলের কাছে রীতি মতো লজ্জার হার মেনে নিলো ফিফা র‌্যাংকিয়ে ৮ নম্বর দল ও আর্জেন্টিনার সমান দুইবার বিশ্বকাপ জয়ী উরুগুয়ে।

তবে বিশেষ করে এ ম্যাচের ৫৭ মিনিটে অস্কার ডুয়ার্টের হেডে যে গোলটি কোস্টারিকাকে এগিয়ে নিয়েছে সেই গোলের কোনো তুলনা খোঁজা ভার।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অস্কারের ওই অসাধারণ গোলেই মনবলে চিড় লাগে উরুগুয়ের। ফলে তারা আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি।

খেলার প্রথম অংশ যত না ছিলো উরুগুয়ের তার চেয়ে অনেক বেশি খেলার দ্বিতীয় অংশ ছিলো কোস্টারিকার। আর খেলার দ্বিতীয় অংশে তো ইচ্ছে করে তেড়ে মেরে কোস্টারিকার মার্কো উরেনাকে ফাউল করলে রেফারি উরুগুয়ের ম্যাক্সিমিলানো পেরেইরােক লাল কার্ড প্রদর্শন করেন। এতে আগামী ম্যাচে নিয়ম অনুযায়ি নিষিদ্ধ তিনি।

আর ম্যাচে উরুগুয়ের পেনাল্টি থেকে তাদের একমাত্র গোলটি করে। গোল করেন উরুগুয়ের এডিনসন কাভানি। খেলার ২৪ মিনিটের মাথায় ডি-বক্সের ভেতর ডিয়াগো লুগানোকে অন্যায়ভাবে বাধা দেন কোস্টারিকা দলের জুনিয়র দিয়াজ। এতেই পেনাল্টি কিক পায় তারা।

এই একমাত্র সুযোগ ছাড়া নিজেরা কোনো সুযোগ তৈরি করে নিতে পরেনি উরুগুয়ে তাই হয়নি কোনো গোলও।

বিশ্বকাপ বাইচাই পর্বে কোস্টারিকা নিজেদের ২২ শতাংশ গোল করেছে খেলার প্রথম ১৫ মিনিটে। তবে এবার সব পরিসংখ্যান গুড়িয়ে দিয়ে খেলার মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে তারা।

এ জয়ে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গ্রুপ পর্ব থেকে কোস্টারিকা যে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাচ্ছে তা অন্তত ৬০ ভাগ নিশ্চিত।

তবে কে বলবে যে এ ম্যাচে দু’দলেই তাদের মূল স্টাইকার আলভেরিও সাবেরিও এবং লুইস সুয়ারেজকে ছাড়াই মাঠে নেমেছে? আসলে ইনজুরির কারেণে তারা মাঠের বাইরে ছিলেন এ ম্যাচে।

ফোর্তালেজা স্টেডিয়ামে ‘ডি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে উরুগুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ সময় শনিবার দিনগত রাত ১টায় মাঠে নামে কোস্টারিকা।

উরুগুয়ে বনাম কোস্টারিকা খেলায় এবারের বিশ্বকাপে আনুষ্ঠানিকভাবে গোললাইন (জিএল) প্রযুক্তির ব্যাবহার করা হয়েছে।

উরুগুয়ে দল
ফার্নান্ডো মুসলেরা (১), দিয়েগো লুগানো (২), দিয়েগো গডম্যান (৩), ওয়ালটার গার্গানো (৫), ক্রিস্টিয়ান রড্রামগুয়েজ (৭), দিয়েগো ফোরলান (১০), ক্রিস্টিয়ান স্টুয়ানি (১১),  ম্যাক্সিমিলানো পেরেইরা (১৬), এজিডিও আলভারো রামোস (১৭), এডিনসন কাভানি (২১), মার্টম্যান ক্যাসেরেস (২২)।

কোচ: অস্কার তাবারেজ (উরুগুয়ে)

কোস্টারিকা দল
কেইলর নাভাস (১), গিয়ানকার্লো গনজালেজ (৩), মাইকেল উমানা (৪), চেলসো বোরগেস (৫), অস্কার ডুয়ার্ট (৬), ক্রিস্টিয়ান বোলানস (৭), জোয়েল ক্যাম্পবেল (৯), রায়ান রুইজ (১০), জুনিয়র দিয়াজ (১৫), ক্রিস্টিয়ান গামবোয়া (১৬), ইয়েলেতসিন তেজেদা (১৭)।
 
কোচ: পিন্টো জর্জ লুইস (কলম্বিয়া)।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৪৬ ঘণ্টা, জুন ১৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa