ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

চট্টগ্রাম আবাহনীকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়েই শেষ আটে বসুন্ধরা কিংস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২০
চট্টগ্রাম আবাহনীকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়েই শেষ আটে বসুন্ধরা কিংস গ্রুপ সেরা হয়েই শেষ আটে বসুন্ধরা কিংস। ছবি: শোয়েব মিথুন

ফেডারেশন কাপের কোয়ার্টার ফাইনাল আগেই নিশ্চিত করেছে বসুন্ধরা কিংস। অন্যদিকে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে চট্টগ্রাম আবাহনীও।

তাই গ্রুপ সেরা হওয়ায় লড়াইয়ে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে মাঠে নামে বসুন্ধরা। শেষ পর্যন্ত 'সি' গ্রুপের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীকে ১-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম ম্যাচের শুরু থেকেই সমান তালে লড়তে থাকে দুদলই। তবে পেনাল্টি বক্সের ভেতরে বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি বসুন্ধরা। গতিময় ফুটবলে বেশ উত্তাপ ছড়ায় দুদলের ফুটবলাররা। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে পেনাল্টি বক্সের ভেতরে গোলরক্ষকের একা পেয়েও গোল করেতে পারেনি মাহবুবুর রহমান সুফিল। ফলে গোল শূন্যভাবে শেষ হয় প্রথমার্ধ।

বিরতির পর আক্রমণের গতি বাড়ায় বসুন্ধরা। ফলাফলও আসে দ্রুত। শুরুতেই এগিয়ে যায় বসুন্ধরা। ৪৯ মিনিটে বসুন্ধরার রবসন ডি সিলভার নেওয়া কর্নার এগিয়ে এসে ফিস্ট করতে চেয়েছিলেন চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষক নাঈম। কিন্তু বলের ফ্লাইট মিস করায় হেড দিয়ে গোল করেন বসুন্ধরার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার রাউল অস্কার।

চট্টগ্রাম আবাহনী সমতায় ফেয়ার সুযোগ পেয়েছিল ম্যাচের ৬১ মিনিটে। পেনাল্টি বক্সের বাম দিক দিয়ে রাকিব হোসেনের বাড়ানো ক্রস পায়ের টোকা দিতে ব্যর্থ হন মান্নাফ রাব্বি। ফলে সহজ গোলের সুযোগ হাত ছাড়া হয়। ৬৭ মিনিটে আরও একটি সুযোগ পায় চট্টগ্রাম আবাহনী। পেনাল্টি বক্সের বাম দিক দিয়ে রকি ক্রস বাড়ান চার্লস দিদিয়ের দিকে। তবে বল তার কাছে যাওয়া আগেই বসুন্ধরার ডিফেন্ডার কর্নারের বিনিময়ে বিপদমুক্ত করেন।

এরপর ম্যাচের বাকিটা সময় চেষ্টা করেও আর সমতায় ফিরতে পারেনি চট্টগ্রাম আবাহনী। ফলে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বসুন্ধরা কিংস। আগামী ০৩ জানুয়ারি ফেডারেশন কাপের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে 'এ' গ্রুপের রানার্স-আপ দলের মুখোমুখি হবে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২০
আরএআর/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।