ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

নওগাঁয় স্বামী-স্ত্রীর ৫ বছর কারাদণ্ড

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট     | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২১ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
নওগাঁয় স্বামী-স্ত্রীর ৫ বছর কারাদণ্ড

নওগাঁ: নওগাঁয় স্ত্রীকে দিয়ে মিথ্যা ধর্ষণের মামলা করানোর দায়ে স্বামী-স্ত্রীর পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিনমাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

 

এ সময় আসামি আফসার আলী আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করলে জামিন নামঞ্জুর করেন বিচারক।  

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) দুপুরের দিকে নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. মেহেদী হাসান তালুকদার এ রায় দেন।  

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে বিশেষ সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) অ্যাডভোকেট মো. মকবুল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

দণ্ডাপ্রাপ্তরা হলেন- জেলার সাপাহার উপজেলার নূরপুর গ্রামের আবদুল হক মণ্ডলের ছেলে আফসার আলী ও তার স্ত্রী মনোয়ারা খাতুন।  

আদালত সূত্রে জানা গেছে, বেগুন গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে জেলার সাপাহার গ্রামের মৃত গিয়াস উদ্দিন মণ্ডলের ছেলে ওসমান গণির সঙ্গে আফসার আলীর বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে মনোয়ারা খাতুনকে বিয়ের প্রলোভন দেন আফসার। এরপর মনোয়ারাকে দিয়ে ২০০৫ সালের ৬ এপ্রিল ওসমান গণির বিরুদ্ধে সাপাহার থানায় একটি অভিযোগ করা হয়।  

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০০৫ সালের ৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় সাপাহার বাজার থেকে উকিলপাড়া যাওয়ার পথে তিলনা রোডের আফিল উদ্দিনের বাড়ির কাছে এলে ওসমান পেছন দিক থেকে মনোয়ারাকে জাপটে ধরে রাস্তার পূর্ব পাশে ধানের চাতালে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরবর্তীকালে পুলিশ তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা আছে মর্মে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করে। উভয়পক্ষের সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে ২০১৩ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি আদালত বেগুন গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে ওই মামলাটি মিথ্যাভাবে দায়ের করা হয় মর্মে প্রতিয়মান হয়। পরে ওসমানকে আদালত বেকসুর খালাস দেন। পরে ওসমান ২০১৩ সালে ১১ সেপ্টেম্বর তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ধর্ষণের মামলা দায়ের করায় আফসার ও মনোয়ারাকে অভিযুক্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আদালতে একটি অভিযোগ দাখিল করেন। দুই পক্ষের সাক্ষ্য নেওয়া শেষে মঙ্গলবার আদালত আফসার ও মনোয়ারাকে ওই সাজা দেন।  

এর আগে আফসার আদালতে উপস্থিত হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করেন। পরে আদালতে উপস্থিত আফসারকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে তার স্ত্রী মনোয়ারার বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানা সহগ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যু করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২০ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।