ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

জাল দলিলে জমি দখলের চেষ্টা, চেয়ারম্যান ও তার বাবা জেলে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০২৪
জাল দলিলে জমি দখলের চেষ্টা, চেয়ারম্যান ও তার বাবা জেলে

দিনাজপুর: জেলার নবাবগঞ্জে জাল দলিল তৈরি করে জমি দখলের অভিযোগে ভাদুরিয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান বাবুল আহসান কবীর ওরফে শামীম ও তার বাবা সাবেক চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমানকে (৬৬) জেলে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।  

সোমবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক গিয়াসউদ্দিন এ আদেশ দেন।

মামলার সূত্রে জানা যায়, মামলার বাদী এমদাদুল হকের বাবা মৃত আব্দুল লতিফ মিয়া ও চাচা আব্দুর রহমান ১৯৬৫ সালে তাদের মায়ের মৃত্যুর পর সম্পত্তি সমূহ নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে নেয়। ১৯৯৭ সালের ২৬ নভেম্বর সেরাজ উদ্দিন ৫৬ শতাংশ তার স্ত্রী ও ৮১ শতাংশ বদিউজ্জামান ও মনিরুজ্জামানের নিকট বিক্রি করেন। পরে আব্দুর রহমান তাদের সঙ্গে একত্রে মাছ চাষ করে আসছিলেন। দুই বছর আগে সাবেক চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ও তার ছেলে ওই সম্পত্তি নিজেদের দাবি করে মাছ চাষে বাঁধা প্রদান করেন। ২০২৩ সালের ৬ জানুয়ারি স্থানীয় থানায় একটি সালিশ হয়। সালিশে ১৯৬৪ সালে জমি ক্রয় করেছেন বলে আসামিরা একটি দলিলের ফটোকপি দেখিয়ে পুকুরের রহমানের অংশও নিজেদের দাবি করেন। যা সম্পূর্ণ জাল দলিল প্রমাণিত হয়। এ ঘটনায় বাদী হয়ে মামলা করেন এমদাদুল হক। দীর্ঘ বিচার কাজ শেষে আদালত আজ এ রায় দেন।  

বিষয়টি নিশ্চিত করে আদালতের পুলিশ পরিদর্শক একেএম লিয়াকত আলী জানান, জমিজমা (সিআর) মামলায় আসামিরা আদালতে আত্মসমর্পণ করতে এলে তাদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এ ঘটনায় বিকেলে বাবা ও ছেলেকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।