ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ৩০ জুন ২০২২, ০০ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

‘ডা. জোবায়দার রায় নিয়ে ফখরুলের মন্তব্য আদালত অবমাননার শামিল’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২২
‘ডা. জোবায়দার রায় নিয়ে ফখরুলের মন্তব্য আদালত অবমাননার শামিল’ দুদকের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমানের মামলার রায় নিয়ে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য আদালত অবমাননার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন দুদকের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ডা. জোবায়দার মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায় সম্পর্কে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে মন্তব্য করেছেন তা আদালত অবমাননার শামিল।

গত ১৩ এপ্রিল দুর্নীতির মামলা বাতিলের আবেদন খারিজ করে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে জোবায়দার লিভ টু আপিল খারিজ করে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতির হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। জোবায়দার পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী। ফলে জোবায়দার বিরুদ্ধে এ মামলা চলতে আর কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী।

এদিকে শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চ প্রাঙ্গণে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন- আওয়ামী লীগ সরকার অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে এদেশে একটা ছদ্মবেশী একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে চায়। সেজন্যই তারা একে একে সমস্ত স্বাধীন যে প্রতিষ্ঠানগুলো আছে, সেই প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করে ফেলেছে। সবার আগে তারা যেখানে হাত দিয়েছে সেটা হচ্ছে বিচার বিভাগ। বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রণ করে আজকে জনগণের যে আশা-আকাঙ্ক্ষা, দেশের মানুষ অন্তত তার প্রয়োজনের সময় বিমেষ করে যখন নির্যাতিত হবে রাষ্ট্র দ্বারা, তখন বিচার বিভাগের কাছে গিয়ে একটা রিলিফ পাবে…। দুর্ভাগ্যের কথা আজকে সেই বিচার বিভাগকে তারা দলীয়করণ করে, নিয়ন্ত্রণ করে এমন একটা জায়গায় নিয়ে গেছে, বিশেষ করে রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের যে রায়গুলো হয়, সেগুলো হয়ে যাচ্ছে একেবারে জনগণের বিরুদ্ধে, গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে। তারা ন্যায় বিচার পাচ্ছেন না।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, অতি সম্প্রতি আপনারা দেখেছেন, আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সহধর্মিণী ডা. জোবায়দা রহমান, যিনি রাজনীতির সঙ্গে কখনই সম্পৃক্ত ছিলেন না, তার নামেও দুদক একটা মিথ্যা মামলা দিয়ে তার কার্যক্রম শুরু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আমরা মনে করি এটা অত্যন্ত বেআইনি কাজ, আমরা মনে করি এটা বিচার বিভাগের স্বাধীনতা শুধু নয়, বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন মন্তব্য নিয়ে শনিবার (১৬ এপ্রিল) দুদকের আইনজীবী বলেন, কারণ না জেনে, না বুঝে সুপ্রিম কোর্টের রায় সম্পর্কে, যে কোনো আদালতের রায় সম্পর্কে মন্তব্য করা অত্যন্ত বিপদজনক। আর সে কাজটি করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, যা আদালত অবমাননার শামিল।

দুদকের এ আইনজীবী আরো বলেন, গত ৭ এপ্রিল আপিল বিভাগের শুনানিতে ওনাদের পক্ষে দীর্ঘ শুনানি করেছেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী (সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী)। দুদকের পক্ষে আমি বিস্তারিত আর্গুমেন্ট করি। এটা ১৩ এপ্রিল খারিজ করে দিয়েছেন। যা মামলার গুণাগুণের ভিত্তিতে নিষ্পত্তি হয়েছে। এ রায় নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে বক্তব্য দিয়েছেন, আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।

আরো পড়ুন:

তারেকের স্ত্রী জোবায়দার নামে দুর্নীতির মামলা চলবে
বিচার বিভাগ দলীয়করণ করা হয়েছে: মির্জা ফখরুল

বাংলাদেশ সময়: ১৩২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২২
ইএস/এনএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa