ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ৩০ জুন ২০২২, ০০ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

সেই তরুণীকে কানাডিয়ান হাইকমিশনের জিম্মায় দেওয়ার নির্দেশ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২২
সেই তরুণীকে কানাডিয়ান হাইকমিশনের জিম্মায় দেওয়ার নির্দেশ

ঢাকা: জন্মসূত্রে কানাডার নাগরিক সেই তরুণীকে কানাডিয়ান হাইকমিশনের কাছে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিষ্ট্রারের মাধ্যমে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে রোববার (১৭ এপ্রিল) রায় দেন বিচারপতি ফারাহ মাহবুব ও বিচারপতি এস এম মনিরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী সারা হোসেন। তরুণীর বাবা মায়ের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী অজি উল্লাহ ও আজিম উদ্দিন পাটোয়ারী।

বাংলাদেশি বাবা-মায়ের ওই সন্তানের জন্ম কানাডায়।   ১৯ বছরের ওই তরুণী কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। ১০ মাস আগে তার বাবা-মা বেড়ানোর কথা বলে তাকে বাংলাদেশে নিয়ে  আসেন। এরপর ওই তরুণী কানাডায় ফিরে যেতে চাইলেও তাকে যেতে দেওয়া হয়নি।  

রিট আবেদনে বলা হয়েছে, তরুণীর কাছ থেকে মোবাইল কেড়ে নিয়ে তাকে তার নানী ও মা সব সময় বাসায় তালাবদ্ধ করে রাখেন। এক পর্যায়ে ওই তরুণী ল্যান্ডফোনে কানাডা সরকার ও ঢাকাস্থ কানাডিয়ান হাইকমিশনকে তাকে জোর পূর্বক ঘরবন্দি করে রাখার কথা জানান। ওই তরুণী কানাডায় ফিরে যাওয়ার ইচ্ছার কথাও জানান।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর মুগদা থানায় কানাডিয়ান হাইকমিশন থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়। পরে বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট) এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ৫ এপ্রিল রাজধানীর উত্তর মুগদায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বাবা-মায়ের হেফাজতে থাকা জন্মসূত্রে কানাডীয় তরুণীকে গত ১০ এপ্রিল  হাজির করাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। সে অনুসারে ওইদিন তাকে হাজির করা হয়। হাজির হয়েছিলেন তার বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত বাবা এবং মা। এরপর আদালত একান্তে ওই তরুণীর কথা শোনেন। তারপর তার বাবা ও মায়ের কথাও শোনেন।   ওইদিন আদালত তরুণীকে আপাতত বাবা-মায়ের কাছে রাখতে বলেন।

পরে আরও একদফা তরুণীকে হাজির করা হয়। আর ওই তরুণীর ইচ্ছা অনুযায়ী কানাডায় ফেরত যেতে তাকে কানাডিয়ান হাইকমিশনের কাছে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিষ্ট্রারের মাধ্যমে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সে অনুসারে এখন মেয়েটি রেজিষ্ট্রারের কার্যালয়ে আছেন বলে জানিয়েছেন আইনজীবী আজিম উদ্দিন পাটোয়ারী। প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শেষে তাকে কানাডিয়ান হাইকমিশনের প্রতিনিধিদের কাছে তুলে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়:১২৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭,২০২২
ইএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa