ঢাকা, সোমবার, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ০৫ জুন ২০২৩, ১৬ জিলকদ ১৪৪৪

জাতীয়

নানা প্রতিকূলতার মধ‍্যেও দেশে সম্প্রীতি বজায় রয়েছে: নৌ প্রতিমন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১১ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২৩
নানা প্রতিকূলতার মধ‍্যেও দেশে সম্প্রীতি বজায় রয়েছে: নৌ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা: বর্তমানে অনেক প্রতিকূলতার মধ‍্যেও দেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) বিকেলে দিনাজপুর জেলার বোচাগঞ্জে আব্দুর রৌফ চৌধুরী অডিটরিয়ামে এতিম শিশুদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয় ৷

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, পবিত্র রমজান মাস ধৈর্য‍্য ও সংযমের মাস। আমাদের ধৈর্য ও সহনশীলতার সঙ্গে চলতে হবে।  বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ মুসলমান। আমাদের মধ‍্যে কোনো বিভেদ নাই। আমরা অন‍্য ধর্মের মানুষের প্রতি সম্মান দেখিয়ে থাকি। এটা ইসলামের অন‍্যতম বৈশিষ্ট। বাংলাদেশের মুসলমানরা আধুনিকতার পরিচয় দিয়ে থাকে।  

বাংলাদেশের মুসলমানরা পৃথিবীতে প্রশংসিত উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তাইতো অনেক প্রতিকূলতার মধ‍্যেও বাংলাদেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রয়েছে। যদিও একটা সময় বিভিন্ন কারণে ধর্মকে ব‍্যবহার করে সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছিল।  

জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন সাচ্চা মুসলমান ছিলেন। অন‍্য ধর্মের মানুষের প্রতি তার বিশ্বাস ছিল এবং বঙ্গবন্ধু ধার্মিক হওয়ার কারণে অন‍্য ধর্মের মানুষেরও বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালবাসা ছিল। একজন মানুষের যদি অন‍্য ধর্মের মানুষের প্রতি শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও বিশ্বাস না থাকে, তাহলে তার প্রতি অন‍্য ধর্মের মানুষের শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও বিশ্বাস থাকে না। বঙ্গবন্ধুর এসব গুণাবলী ছিল বলেই আমরা তার নেতৃত্বে অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছি এবং বিজয় অর্জন করেছি। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

ইফতার মাহফিলে দেশ ও জাতির উন্নয়ন ও মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

এসময় অন‍্যান‍্যের মধ‍্যে উপস্থিত ছিলেন বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ছন্দা পাল, বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সৈয়দ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আফছার আলী, সেতাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. আসলামসহ আরও অনেকে।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এর আগে জেলার বিরল উপজেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে উপজেলার ১৪৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ল্যাপটপ বিতরণ করেন এবং সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করার পর অমানবিক চিন্তাভাবনা নিয়ে দেশ পরিচালনা করা হয়েছে। শিক্ষা ব্যবস্থাকে কঠিন করে তোলা হয়েছিল। দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে বঙ্গবন্ধু ও তার কন্যা শেখ হাসিনা ছাড়া আর কেউই ভাবেন নি। বঙ্গবন্ধু ১৯৭৩ সালে শিক্ষার ভিত্তি প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে কাজ করেন। আর তার কন্যা শেখ হাসিনা শিক্ষার ভিত্তি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সরকারিকরণ করেন।  

তিনি আরও বলেন, আমরা যে উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখছি, এই স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার কারিগরই হচ্ছেন প্রাথমিক শিক্ষকরা। তাই প্রাথমিক শিক্ষকদের উন্নত ও স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোছা. আফছানা কাওছারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন‍্যান‍্যের মধ‍্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান একেএম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগর, সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ত রায় ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার মুনিরুল ইসলাম।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২৩
এসকে/এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa