ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

দিনাজপুরে ৪০ এতিম কন্যাকে দেওয়া হলো বিবাহোত্তর সংবর্ধনা  

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৩ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০২২
দিনাজপুরে ৪০ এতিম কন্যাকে দেওয়া হলো বিবাহোত্তর সংবর্ধনা   দিনাজপুরে ৪০ জন এতিম মেয়ের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা

দিনাজপুর: দিনাজপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে ৪০ জন এতিম মেয়েকে বিবাহোত্তর সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ মে) দুপুরে দিনাজপুর লায়ন্স ক্লাব, শিশু নিকেতন এবং সমাজসেবা অধিদপ্তরের আয়োজনে দিনাজপুর শহরের গ্রিন ভিউ কমিউনিটি সেন্টারে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, একে একে সারিবদ্ধভাবে বসে আছেন ৪০ জন বর ও কনে। এই ৪০টি বিয়েই হয়েছে যৌতুকবিহীন । বড় পরিসরে বিবাহোত্তর সংবর্ধনার এমন আয়োজনে আনন্দ- উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন বর-কনেরা।  

পরে প্রত্যেক দম্পতিকে একটি করে সেলাই মেশিন, বাইসাইকেল, টেবিল ফ্যান, নগদ অর্থসহ অন্যান্য সাংসারিক জিনিসপত্র দেওয়া হয়।  

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ বলেন, যৌতুক আমাদের সমাজে একটি ব্যাধি। এই  ব্যাধি থেকে আমাদের সরে আসতে হবে।  বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতিমদের বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করছেন।  

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকি, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নুল আবেদিন, দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতি রেজা হুমায়ুন ফারুক চৌধুরী শামীম, শিশু নিকেতন পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোজাফ্ফর আলী মিলন প্রমুখ।  

শিশু নিকেতন সূত্রে জানা যায়, সর্বশেষ ২০১৯ সালে একসাথে শিশু নিকেতনের ২০ এতিম মেয়ের বিয়ে দেওয়া হয়। এরপর থেকে করোনা সংক্রমণের কারণে একসঙ্গে বিয়ে দেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে ৪০ এতিম মেয়ের বিয়ে ২০১৯ সালের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। আজ তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা দেওয়া হলো। ১৯৭৯ সালে প্রতিষ্ঠিত এই শিশু নিকেতনের বাসিন্দাদের এইচএসসি পর্যন্ত পড়ালেখা শেষে ১৮ বছর হওয়া পর আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে দেওয়া হয়। এ পর্যন্ত শিশু নিকেতনের ১৭৪ জন মেয়ের বিয়ে দেওয়া হয়েছে।   

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩২ ঘণ্টা, ২৭ মে, ২০২২
ইআর 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa