ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

সব অতীত অপকর্মের সমুচিত জবাব দেওয়া হবে: আশরাফ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১০
সব অতীত অপকর্মের সমুচিত জবাব দেওয়া হবে: আশরাফ

ঢাকা: চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের অপরাধের আইনানুগ শাস্তি দেওয়ার মধ্য দিয়েই সব অতীত অপকর্মের সমুচিত জবাব দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

বুধবার দলের পক্ষে এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা বলেন।



এতে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর (সাকা) মতো কিছু বিএনপি নেতার হৃদকম্পন বেড়ে গেছে গেছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

আশরাফ বলেন, ‘সংবিধান সংশোধন নিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বক্তব্য অসংলগ্ন, বিদ্বেষমূলক ও কুরুচিপূর্ণ। ’

এর আগে সোমবার সাকা চৌধুরী এক সংবাদ সম্মেলনে সংবিধান সংশোধনের দায় প্রধানমন্ত্রীকেই নিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন।

এর জবাবে এই বিবৃতি দেওয়া হয়।

সাকা মুক্তিযুদ্ধের সময় গণহত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ, লুণ্ঠন, যুদ্ধাপরাধ, মানবতা ও শান্তির বিরুদ্ধে অপরাধে লিপ্ত ছিলেন উল্লেখ করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় তিনিসহ বিএনপির এক শ্রেণীর নেতার হৃদকম্প শুরু হয়ে গেছে।

‘ওইসব নেতার অসংলগ্ন কথাবার্তার মাত্রা সম্প্রতি বেড়েছে। এই সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম কুণ্ডেশ্ব¦রী ঔষধালয়ের অধ্য নূতন চন্দ্র সিংহকে ১৯৭১ সালের ১৪ এপ্রিল বর্বরোচিতভাবে হত্যা করার অভিযোগ জনতার আদালতে রয়েছে। ’

তিনি বলেন, ‘সাকা চৌধুরীরা যে বলছেন আওয়ামী লীগের ইশতেহারে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কথা নেই- এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে স্পষ্টভাবে লিখিত আছে- সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ শক্ত হাতে দমন করা হবে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ব্যবস্থা করা হবে। ’

বাক স্বাধীনতার নামে যা খুশি বলার দিন শেষ হয়ে গেছে উল্লেখ করে বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, ‘মানবতাবিরোধী যুদ্ধাপরাধ কখনো তামাদি হয়ে যায় না। রাজনীতি থেকে এই বর্জ্য চির নির্বাসনে পাঠানোর জন্যই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে হবে। ’

এদিকে, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে এবং যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচারের দাবিতে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ সমাবেশ করবে।

বঙ্গবন্ধু এভিনিউ প্রাঙ্গণে বিকেল ৫টায় এই সমাবেশে প্রধান অতিথির হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী।

অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমসহ কেন্দ্রীয় ও জাতীয় নেতারা উপস্থিত থাকবেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৬ ঘণ্টা, জুলাই ২৮, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa