ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ শাবান ১৪৪৫

পর্যটন

‘মারমেইড নিয়ে অপপ্রচার বিশেষ মহলের চক্রান্ত’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৯
‘মারমেইড নিয়ে অপপ্রচার বিশেষ মহলের চক্রান্ত’

ঢাকা: কক্সবাজারের প্যাঁচারদ্বীপ এলাকার একটি কটেজে অস্ট্রেলীয় নারীর শ্লীলতাহানির ঘটনাকে মারমেইড বিচ রিসোর্টের ঘটনা বলে চালিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বিদেশি পর্যটকদের পছন্দের শীর্ষে থাকা মারমেইড বিচ ও ইকো রিসোর্টের বিরুদ্ধে অপপ্রাচার চালাতেই একটি বিশেষ মহল বিভিন্ন মিডিয়ায় এটি ছড়িয়েছে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) মারমেইড ইকো রিসোর্টের ম্যানেজার আবু বকর সিদ্দিক পাঠানো প্রতিবাদলিপিতে জানানো হয়, ১৭ ডিসেম্বর কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের প্যাঁচারদ্বীপ সৈকতের ‘গুডভাইভ’ কটেজে এ ঘটনা ঘটে। পরে ঘটনায় পুলিশ সিকিউরিটি গার্ডসহ তিনজনকে আটকও করেছে৷ অথচ একটি বিশেষ মহল অসৎ উদ্দেশ্যে এটাকে মারমেইড বিচ রিসোর্টের ঘটনা এবং মালিক আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগও এর সঙ্গে জড়িত বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার করে।

অথচ মারমেইড রিসোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ চিকিৎসাজনিত কারণে বিগত চারমাস ধরে বিদেশে অবস্থান করছেন৷ আর ঘটনাস্থলও মারমেইড থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে।

মারমেইড কর্তৃপক্ষ দেশি-বিদেশি পর্যটকদের নিরাপদ সেবা দিয়ে আসছে। এ কারণে অধিকাংশ বিদেশি পর্যটকদের প্রিয় ঠিকানা এখন মারমেইড। খাবারের বৈচিত্র্যতা, গুণগতমান ধরে রেখে মারমেইড কর্তৃপক্ষ কক্সবাজার পর্যটন সেক্টরকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরছে। পাশাপাশি স্থানীয় জনগোষ্ঠীর বিপুল তরুণ যুবককে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দিচ্ছে। এ কারণে মারমেইড অনেকের কাছে ঈর্ষার কারণও হতে পারে বলে জানানো হয়।

ভুল সংবাদে প্রতিষ্ঠিত একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তিও ক্ষুণ্ন যেন না হয় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা কামনা করেছে মারমেইড পরিবার।

***কক্সবাজারে অজি তরুণীর শ্লীলতাহানিচেষ্টা, আটক ৪
বাংলাদেশ সময়: ১৪৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৯
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।