ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

ইসলাম

বরিশালে ইজতেমার প্রস্তুতি শেষের পথে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০১৫
বরিশালে ইজতেমার প্রস্তুতি শেষের পথে ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বরিশাল: বরিশালে আয়োজিত তিন দিনব্যাপী ‌আঞ্চলিক ইজতেমার প্রস্তুতি প্রায় শেষের পথে।

বরিশাল বিভাগের বরিশাল, পিরোজপুর ও বরগুনা জেলার আয়োজনে ১০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে এ ইজতেমা।



এ লক্ষে প্রায় দেড় থেকে দুই লাখ মুসল্লির অংশগ্রহণের বিষয়টি নির্ধারণ করে বরিশাল নগরীর নবগ্রাম রোডের পশু প্রজনন কেন্দ্র কার্যালয়ের বিপরীতে প্রায় ১০ একর কৃষি জমিতে চলছে ইজতেমা ময়দান প্রস্তুতির শেষ মুহূর্তের কাজ।

আঞ্চলিক এ ইজতেমা সফল করতে ইতোমধ্যে বিভিন্ন পর্যায়ে কয়েক দফা আলোচনা সভাও হয়েছে। জেলা প্রশাসক, পুলিশ প্রশাসন ও সিটি মেয়র কয়েক দফায় মাঠ এলাকা পরিদর্শন করেছেন।
 
এছাড়া সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে ইজতেমার মাঠে প্রবেশের জন্য একটি অস্থায়ী লোহার সেতু তৈরি করা হয়েছে।

ইজতেমা মাঠে প্রবেশের জন্য ৫টি স্থান নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। মাঠে বসার স্থানও ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে বরিশালের বিভিন্ন উপজেলার জন্য ১০টি ও বরিশাল নগরীর জন্য ১৮টি স্থান নির্ধারিত রয়েছে।

এবার ইজতেমায় বাক-প্রতিবন্ধীদের জন্য রয়েছে পৃথক বসার ও জিকিরের ব্যবস্থা।

ইজতেমায় ভারত এবং ঢাকার কাকরাইল মসজিদের বিশিষ্ট বক্তারা উপস্থিত থাকবেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় মুরব্বি মো. শাহজাহান।

তিনি জানান, নগরীর নবগ্রাম রোডের সরদার বাড়ি, সিকদার বাড়ি, গাজী বাড়ি ও চৌধুরী বাড়ির বাসিন্দারা তাদের প্রায় ১০ একর জমি ইজতেমা উপলক্ষে ব্যবহার করতে দিয়েছেন।

এদিকে, ইজতেমা আগতদের জন্য বরিশাল পাবলিক হেলথ ও সিটি করপোরেশন থেকে পানি সরবরাহ করা হবে। পাবলিক হেলথ ২ হাজার লিটারের ২৬টি ট্যাংক  ও সিটি করপোরেশন পানির লাইনসহ ৩টি টিউবওয়েল স্থাপন করবে। এছাড়া সিটি করপোরেশন ৩শ বাল্ব ও ৩শ টয়লেটের ব্যবস্থা করবে।

অন্যদিকে, পিডিবি এবং পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের কাজ শুরু হয়েছে। মুসল্লিদের সেবায় মেডিকেল টিমসহ সিটি করপোরেশনের ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম কাজ করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

ইজতেমা মাঠে এরইমধ্যে ৪টি পয়েন্টে কয়েকশ টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। স্থানীয় ও আশপাশের ৫টি বড় পুকুরে ঘাট র্নিমাণ করে গোসল ও ওজুর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইজতেমা মাঠের মুরব্বিরা জানান, তাবলীগ জামাতের মুসল্লিরা স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে স্থানীয় প্রশাসন।

এসব বিষয়ে বরিশালের জেলা প্রশাসক ড. গাজী সাইফুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, ইজতেমায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৫
এসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa