ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

ইসলাম

লন্ডন থেকে সাইকেলে হজযাত্রায় ৮ ব্রিটিশ, পৌঁছালেন মিশর

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৪ ঘণ্টা, জুলাই ২৭, ২০১৯
লন্ডন থেকে সাইকেলে হজযাত্রায় ৮ ব্রিটিশ, পৌঁছালেন মিশর সাইকেল চালিয়ে হজযাত্রায় ৮ ব্রিটিশ মুসলিম। ছবি: সংগৃহীত

সাইকেলে হজযাত্রায় বেরিয়েছেন ৮ ব্রিটিশ মুসলিম। লন্ডন থেকে যাত্রা করে দলটি বহু চড়াই-উৎরাই পেরিয়েছে। সর্বশেষ মিশরের সৌদি সীমান্তবর্তী এলাকায় যাত্রাবিরতি দিয়েছে শুক্রবার (২৬ জুলাই)। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

এমন অভিনব যাত্রা সম্পর্কে জুলাইয়ের ১৩ তারিখে দলটির সদস্য জাইন লাম্বাত বলেছিলেন, বিভিন্ন কারণে এই যাত্রা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা আমাদের ঈমান ও বিশ্বাসের পথে বেরিয়েছি।

যাত্রাপথে বিভিন্ন মহান মানুষদের সঙ্গে আমাদের দেখা হয়েছে। আমাদের অনেক চমৎকার কিছু গল্প রয়েছে। দারুণ কিছু সময় কাটিয়েছি, সারাটা যাত্রাপথ ভালোবাসায় আকীর্ণ ছিল। গন্তব্যে যেতে আমাদের জন্য এটি অসাধারণ অভিজ্ঞতা।

জাইন আরো বলেছিলেন, সত্যিকার অর্থে ও মনে-প্রাণে যদি আপনি হজ করার ইচ্ছে করেন, তাহলে আল্লাহ আপনার জন্য পথ সহজ করে দেবেন। আশা করছি, যাত্রাপথে বিশ্বের মুসলমানদের সহায়তার জন্য পাঁচ লক্ষ পাউন্ড সমপরিমানের (বাংলাদেশি মুদ্রায় যা পাঁচ কোটি এগারো লাখ চৌদ্দ হাজার টাকা সমপরিমাণ প্রায়) তহবিল সংগ্রহ করতে পারবো।

.ব্রিটিশ গ্রুপটি পবিত্র ভূমির উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছে ০৭ জুন।  তারা এ সফরের নাম দিয়েছে ‘ট্যুর দ্য হজ’। যাত্রার দিন থেকে ৬০ দিনের ভেতর সৌদিতে গিয়ে পৌঁছবেন বলে আশা তাদের। এ যাত্রায় ৪ হাজার মাইল ও ১৭টি দেশ অতিক্রম করতে হবে।  অবশ্য সিরিয়া ও ইরাক বিমানে পাড়ি দিয়ে মিসরে পৌঁছান।  অন্যদিকে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, শনিবারের ভেতর (২৭ জুলাই) তারা সৌদির উত্তারাঞ্চলীয় সীমান্তবর্তী সমুদ্রবন্দর দাব্বাতে পৌঁছে যাওয়ার কথা।

সৌদিতে পৌঁছে প্রথমে তারা প্রিয়নবী (সা.)-এর রওজা জিয়ারতের জন্য মদিনা মুনাওয়ারায় যাবেন। এরপর হজব্রত আদায়ের জন্য যাবেন পবিত্র মক্কা নগরীতে। তাদের দলের সাত জন সদস্য পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত ও একজন শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভুত।

এর আগে তুরস্ক পেরুনোর সময় ইস্তাম্বুলের দোলমাবাহচের প্রেসিডেন্ট দপ্তরে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান তাদের স্বাগত জানিয়েছেন।

ইস্তাম্বুলের দোলমাবাহচের প্রেসিডেন্ট দপ্তরে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান তাদের স্বাগত জানান।  ছবি: সংগৃহীতমদিনা অভিমুখী এই যাত্রায় বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের বিবিধ সমস্যা নিয়ে তারা বিভিন্ন স্থানে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা তৈরির কাজ করছেন। পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকা ও উগান্ডার দরিদ্র মুসলমানদের সাহায্য, মসজিদ ও শিক্ষাঙ্গন নির্মাণ এবং গভীর নলকূপ খননের জন্য বিভিন্ন রকমের তহবিলও সংগ্রহ করছেন। এ তহবিলে ৬ লাখ ১৯ হাজার ডলার সংগ্রহ করা তাদের উদ্দেশ্য বলে জানা গেছে।

দলটির প্রধান তাহির হাসান আখতার (৪৫) জানান, তিনিই একমাত্র ওই দলের সদস্য; যারা ২০১৭ সালে সাইকেলে হজযাত্রার দলে ছিলেন। তখনও আটজন সদস্যের দল নিয়ে তারা লন্ডন থেকে পবিত্র মক্কা নগরীতে এসে হজ করেছিলেন।

আরো পড়ুন: ইংল্যান্ড থেকে সাইকেলে হজযাত্রায় ৮ ব্রিটিশ মুসলিম

হাসান আখতার বলেন, যাত্রাপথে বহুবিধ চ্যালেঞ্জ আমরা মোকাবেলা করেছি। একেক সময় একেক রকম ঝামেলার মুখোমুখি হতে হয়েছে। সুইজারল্যান্ডের আল্পস পর্বত সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৪ হাজার ৮১০ মিটার উঁচু। কিন্তু আলহামদুলিল্লাহ আমরা সেটাও আরোহন করে পাড়ি দিয়েছি। স্বভাবতই কষ্টের সঙ্গে আনন্দ-সুখের মিশেল থাকে।

সাইকেলে হজযাত্রা এবারই প্রথম নয়। বরং সাইকেল চালিয়ে হজে যাওয়ার চেষ্টা ইদানিং বাড়ছে। গত মাসে চার কেনিয়ান সাইক্লিস্ট এবং দুই সদস্যের একটি দল নাইজেরবি থেকে মক্কার উদ্দেশে দীর্ঘ যাত্রা শুরু করেছেন। তারা সৌদি সীমান্তের কাছাকাছি পৌঁছেছেন।  (বিস্তারিত পড়ুন: সাইকেল চালিয়ে হজযাত্রায় চার কেনিয়ান)

চার কেনিয়ান সাইক্লিস্ট এবং দুই সদস্যের একটি দল নাইজেরবি থেকে মক্কার উদ্দেশে দীর্ঘ যাত্রা শুরু করেছেন।  ছবি: সংগৃহীততাদের সফরের সার্বিক তথ্য জানাতে তারা ‘পেডল টু হজ’ নামে একটি ওয়েবসাইট খুলেছেন। সেখানে তারা তাদের কর্মপরিধি, যাত্রালক্ষ্য ও আনুসাঙ্গিক অন্যান্য তথ্য সংক্ষেপে উল্লেখ করেছেন। তাতে বলা হয়েছে, ‘পেডল টু হজ’ গ্রুপে চারজন সাইক্লিস্ট রয়েছেন। কেনিয়াতে মৌলিক শিক্ষায় সামর্থ্যহীন শিশুদের শিক্ষার জন্য তহবিল সংগ্রহের লক্ষ্যে তারা সাইকেলে হজে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

২০১৮ সালে ইন্দোনেশিয়ার মুসলমানদের পাঁচ সদস্যের এক পরিবার বাইসাইকেল চালিয়ে মক্কার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন হজ পালনের জন্য। এই পুণ্যের যাত্রায় রয়েছেন মুসলিস আবদুল্লাহ (৪৭), তার স্ত্রী জুলিয়ান্তি হুসিন (৪৭), তাদের সন্তান মির্জা হাকিম (১৫), আহমদ জাকি হাফিজ (১১) এবং ছয় বছর বয়সী অলিভিয়া ইয়ুমনা রয়েছেন। তাদের দিক-নির্দেশনায় সঙ্গে আছেন মুসলিসের বন্ধু মোহামেদ দামাহুরি মুতালিব (৬২)।

ইন্দোনেশিয়ার পাঁচ সদস্যের এক পরিবার বাইসাইকেল চালিয়ে মক্কার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন হজ পালনে। জাভার মধ্যাঞ্চলের শহর যুগজাকার্তায় নিজেদের বাড়ি থেকে মক্কায় গিয়ে পৌঁছাতে তাদের পাড়ি দিতে হবে ১৩ হাজার কিলোমিটার পথ।  (বিস্তারিত পড়ুন: সাইকেলে হজযাত্রায় ইন্দোনেশীয় পরিবার, পেরোবে বাংলাদেশও)

এর আগে ২০১৭ সালে ইন্দোনেশিয়ান এক যুবক হজ পালন করতে ৯ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি হাঁটে মক্কায় পৌঁছে। এছাড়াও একই বছর সাইকেল চালিয়ে হজের উদ্দেশে সৌদি আরবের মদিনায় যান যুক্তরাজ্যের আট যুবক। সেই যাত্রায় সিরিয়ার যুদ্ধবিধ্বস্ত মানুষের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেন তারা। সেই আটজনের দলে তিন বাংলাদেশিও ছিলেন।

২০১৭ সালে সাইকেল চালিয়ে হজের উদ্দেশে সৌদি আরবের মদিনায় যান যুক্তরাজ্যের আট যুবক।  সেই আটজনের দলে তিন বাংলাদেশিও ছিলেন। ২০১৬ সালে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে সাইকেল চালিয়ে সৌদি আরবের তায়েফ পৌঁছেছেন এক চীনা মুসলিম। চীনের জিংজিয়াংয়ের অধিবাসী ওই মুসলিমের নাম মুহাম্মদ। চীন থেকে সাইকেল চালিয়ে সৌদি পৌঁছতে তাকে ৮ হাজার ১৫০ কিলোমিটারের বেশি পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।  (বিস্তারিত পড়ুন: চীন থেকে সাইকেল চালিয়ে হজে)

চীনের জিংজিয়াংয়ের মুহাম্মদ।  চীন থেকে সাইকেল চালিয়ে সৌদি পৌঁছতে তিনি ৮ হাজার ১৫০ কিলোমিটারের বেশি পথ পাড়ি দেন। ২০১২ সালে ৪৭ বছর বয়সী বসনিয়ান মুসলিম সেনাদ হাদজিক হজ পালনের জন্য পায়ে হেঁটে পবিত্র মক্কায় পৌঁছেন।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৪, জুলাই ২৭, ২০১৯ (আপডেট/বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৩, জুলাই ২৭, ২০১৯
এমএমইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।