ঢাকা, বুধবার, ১ বৈশাখ ১৪২৮, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০১ রমজান ১৪৪২

আইন ও আদালত

পত্রিকার বিজ্ঞাপন কর্মকর্তাকে হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১
পত্রিকার বিজ্ঞাপন কর্মকর্তাকে হত্যায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

ঢাকা: দৈনিক বণিকবার্তা পত্রিকার বিজ্ঞাপন বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর আলম কাওছার (৩৮) হত্যা মামলায় একজনকে মৃত্যুদণ্ড ও তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (২ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ তেহসিন ইফতেখার এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- জাহাঙ্গীর আলমের খালাতো ভাই এইচএম ফয়সাল। আর যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নাজমুল হাসান ওরফে রাকিব, রায়হান হাসান সারোয়ার ও ফাহিম হাসান খান।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল পলাতক। আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ইস্যু করেন। কারাগারে থাকা অপর তিন আসামিকে এদিন কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। রায় ঘোষণার পর সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাদের আবার কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর সকালে বাসা থেকে বের হন জাহাঙ্গীর আলম। এরপর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। ওই দিন তেজগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়। জাহাঙ্গীরের খবর জানতে একাধিক বার ফয়সালের সঙ্গে কথা বলে তার পরিবার।

কিন্তু ফয়সাল জানায়, সে জাহাঙ্গীরের বিষয়ে কিছু জানে না। পরে রাজধানীর খিলক্ষেত নামাপাড়ার ২১১/১-এ নম্বর বাড়ির পাঁচতলার একটি মেস থেকে সুটকেসের ভেতর থেকে জাহাঙ্গীরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় নিহত জাহাঙ্গীরের স্ত্রী রোকসানা পারভীন ১৮ সেপ্টেম্বর খিলক্ষেত থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলাটি তদন্ত করে ২০১৬ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা খিলক্ষেত থানার এসআই আব্দুল জলিল। ওই বছরের ২৫ মে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। মামলাটির বিচার চলাকালে রাষ্ট্রপক্ষে মোট ১২ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১
কেআই/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa