ঢাকা, শনিবার, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৬ মহররম ১৪৪৬

জাতীয়

আধা ঘণ্টা দেরিতে ছাড়লো একতা এক্সপ্রেস, ছাদেও ছিল যাত্রী 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৩৬ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
আধা ঘণ্টা দেরিতে ছাড়লো একতা এক্সপ্রেস, ছাদেও ছিল যাত্রী 

ঢাকা: এবার ঈদ যাত্রার প্রথম দিন কিছুটা বিলম্বে ট্রেন ছাড়লেও, অন্যান্য দিনে ছিল না এই ভোগান্তি। প্রায় নির্দিষ্ট সময়ে সব ট্রেন ছেড়ে যাওয়ায় স্বস্তিতেই বাড়ি ফিরছেন সাধারণ মানুষ।

ঈদযাত্রার শেষ দিনেও রয়েছে এমন স্বস্তি। শুধু ব্যতিক্রম দেখা গেছে কুড়িগ্রামগামী একতা এক্সপ্রেসে।  

রোববার (১৬ জুন) নির্দিষ্ট সময়ের প্রায় আধ ঘণ্টা দেরিতে প্ল্যাটফর্ম ত্যাগ করে উত্তরবঙ্গগামী এই ট্রেনটি।  

এদিন সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে কুড়িগ্রামের উদ্দেশে কমলাপুর রেল স্টেশন ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল একতা এক্সপ্রেসের। কিন্তু ট্রেনটি প্ল্যাটফর্মেই প্রবেশ করে ওই সময়। ট্রেন থামার সঙ্গে সঙ্গে প্ল্যাটফর্মে অপেক্ষমাণ কয়েক হাজার যাত্রী হুমড়ি খেয়ে পড়েন। মুহূর্তেই ভরে যায় ট্রেনটি। ট্রেনের ভেতরে তিল ধারণের জায়গা না থাকায় অনেকে ছাদে উঠে যান। প্রায় আধা ঘণ্টা পর সকাল পৌনে ১১ টায় ট্রেনটি প্ল্যাটফর্ম ত্যাগ করে ট্রেনটি।  

এই ট্রেনে করে বাড়ি যাচ্ছিলেন বেসরকারি চাকরিজীবী হামিদুল ইসলাম। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, ট্রেনে এত ভিড় ছিল যে দরজা দিয়ে উঠতে পারিনি। জানালা দিয়ে উঠতে হয়েছে। যদিও নিজের আসনেই বসতে পেরেছেন তিনি।  

একই ট্রেনের যাত্রী ইসমাইল হোসেন বলেন, উত্তরবঙ্গের ট্রেনে এমনিতেই যাত্রী বেশি থাকে। কারণ বাসে দীর্ঘ সময় লাগে। তাই উত্তরবঙ্গের যাত্রীরা ট্রেনেই যাতায়াত করেন। যে কারণে ভিড়ও বেশি।  

এই বিষয়ে ঢাকা রেল স্টেশনের ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার বলেন, গার্মেন্টসগুলো ছুটি হওয়ায় গতকাল রাত থেকে উত্তরবঙ্গগামী ট্রেনে ব্যাপক চাপ ছিল। যার ধারবাহিকতায় আজকে সকালে একতা এক্সপ্রেসেও ব্যাপক চাপ ছিল। ঈদ যেহেতু আমাদের জন্য একটা উৎসব, তাই ঘরে ফেরা এই মানুষগুলোকে আর ফেরানো সম্ভব হয়নি। যার কারণে তারা বিভিন্নভাবে নিজ গন্তব্যে রওনা দিয়েছেন। আমরা নানাভাবে চেষ্টা করেও তাদের ঠেকাতে পারিনি। মানবিক বিষয় বিবেচনা করে তাদের এভাবেই যেতে দেওয়া হয়েছে।  

শুধু একতা এক্সপ্রেস নয়, খুলনাগামী নকশিকাঁথা এক্সপ্রেসও প্রায় আধা ঘণ্টা বিলম্বে ছেড়ে যায়। এছাড়া বাকি সব ট্রেনই প্রায় নির্দিষ্ট সময়ে প্ল্যাটফর্ম ত্যাগ করেছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৫ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
এসসি/এসআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।