ঢাকা, বুধবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪, ২০ জিলকদ ১৪৪৫

রাজনীতি

জামিনে মুক্তি পেলেন সিসিক মেয়র আরিফ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৪, ২০১৭
জামিনে মুক্তি পেলেন সিসিক মেয়র আরিফ মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী/ ছবি- আবু বকর

সিলেট: জামিনে মুক্তি পেলেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) বরখাস্তকৃত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়া শেষে বুধবার (৪ জানুয়ারি) বিকেল সোয়া ৫টায় কারাগার থেকে মুক্তি পান তিনি। মুক্তির পর সোজা কুমারপাড়াস্থ বাসভবনে যান আরিফ। দীর্ঘ ২ বছর ৫ দিন কারাভোগের পর উচ্চ আদালতের নির্দেশে তিনি সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন। 

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি হিসেবে ২০১৪ সালের ৩০ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মসমর্পণ করলে ওইদিন আদালত জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান।

আরিফুল হক সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া ছাড়াও আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় বিস্ফোরণ ও হত্যা মামলার আসামি।

এই দু’টি ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক মামলাসহ মোট চারটি মামলাতেই আরিফুল হক চৌধুরী জামিন লাভ করেছেন বলে বাংলানিউজকে জানান সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার সগির মিয়া।

২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈদ্যের বাজারে আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভা শেষে ফেরার পথে গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়াসহ পাঁচ জন। এ ঘটনায় হত্যা এবং বিস্ফোরক আইনে পৃথক দু’টি মামলা করা হয়।

২০১৪ সালের গত ২১ ডিসেম্বর আরিফুল হক চৌধুরী, জি কে গউছ এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরীসহ ১১ জনকে অভিযুক্ত করে হবিগঞ্জে আদালতে সম্পূরক চার্জশীট দেয় সিআইডি পুলিশ।

এদিকে ২০০৪ সালের ২১ জুন সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জনসভায় বোমা হামলা হলে এক যুবলীগকর্মী নিহত হন। দু’টি মামলাতে আসামি করা হয়েছে আরিফকে। নির্বাচিত মেয়র হলেও মামলার কারণে তাকে বরখাস্ত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৪, ২০১৭
এনইউ/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।