ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

কৃষি

দেশের উন্নয়নের মশাল এখন শেখ হাসিনার হাতে: কৃষিমন্ত্রী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৯ ঘণ্টা, জুন ২, ২০২২
দেশের উন্নয়নের মশাল এখন শেখ হাসিনার হাতে: কৃষিমন্ত্রী

নাটোর: কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, দেশে অভূতপূর্ব উন্নয়নের আলোতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ জড়িয়ে আছে। উন্নয়নের এ মশাল এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে।

তার নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। এখন আমরা উৎপাদিত খাদ্য পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ এবং নিরাপদ করার জন্য কাজ করছি।

বৃহস্পতিবার (০২ জুন) দুপুরে নাটোরে অবস্থিত দেশের একমাত্র ঔষধি গ্রাম পরিদর্শন শেষে লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া আমিরগঞ্জ ঈদগাহ মাঠে কৃষকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব এ কথা বলেন।

এর আগে সকাল ১০টায় তিনি ঔষধি গ্রামের খোলাবাড়িয়া মধ্যপাড়ায় আদর্শ কৃষক জয়নাল আবেদীনের সাড়ে পাঁচশ’ প্রজাতির ঔষধি বৃক্ষের মিউজিয়াম পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি বিভিন্ন ঔষধি ক্ষেত পরিদর্শন করেন ও কৃষকদের সুবিধা-অসুবিধার কথা শোনেন।  

এসময় কৃষকদের ভেষজ উদ্ভিদ  উৎপাদনে কৃষিঋণের সুবিধা দেওয়ার পাশাপাশি অ্যালোভেরাসহ উৎপাদিত অন্যান্য ভেষজ কৃষিপণ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং বিপণনে সরকারি সহায়তার আশ্বাস দেন কৃষিমন্ত্রী।

জেলা প্রশাসনের আয়োজিত মতবিনিময় কৃষিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কৃষিকে বাণিজ্যিকীকরণ করতে চায়। কৃষির উৎপাদন যেন কৃষকের শুধুমাত্র খাদ্য চাহিদা পূরণের সহায়ক না হয়। কৃষি যেন অর্থকরি ফসলে পরিণত হয়। কৃষি যেন তাদের জীবন ও জীবিকার উৎস হিসেবে কাজ করে। কৃষকের উৎপাদিত শাক-সবজি ও ফল সংরক্ষণে সম্প্রতি সরকার পাল্টিপল কোল্ড স্টোরেজ নির্মাণের পদক্ষেপ নিয়েছে।  

নাটোরের ঔষধি গ্রামে উৎপাদিত বিপুল পরিমাণ অ্যালোভেরা অত্যন্ত সম্ভাবনাময়। আন্তর্জাতিক বাজারে অ্যালোভেরার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। করোনা সংকট এখন কেটে গেছে। অ্যালোভেরাসহ উৎপাদিত অন্যান্য ভেষজ উদ্ভিদ প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং বিপণন করতে পারলে কৃষকরা উপকৃত হবেন। কৃষকদের স্বার্থে কৃষি মন্ত্রণালয় কার্যকর পদক্ষেপ নেবে বলেও আশ্বস্ত করেন তিনি।

তিনি বলেন, ধান, শাক-সবজিসহ অন্যান্য ফসলের মত উৎপাদিত ঔষধি পণ্যের গবেষণা শুরুর ব্যাপারেও কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ভেষজ উৎপাদনে কৃষি ঋণের সুবিধা দেওয়া হবে।

ড. আব্দুর রাজ্জাক আরও বলেন, ১৯৪৯ সালে প্রতিষ্ঠিত আওয়ামী লীগ ঐতিহ্য ও অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ রাজনৈতিক দল। সময়মত এ দলের কেন্দ্রীয় কাউন্সিল হবে। আন্দোলনে ব্যর্থ বিএনপি শুধু আন্দোলনের ঘোষণাই দেয়, আন্দোলন করার সক্ষমতা তাদের নেই। ২০২৩ সালের জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপিসহ বিভিন্ন ছোট ছোট রাজনৈতিক দল আন্দোলনের হুমকি দিচ্ছে। এগুলো আমরা মোকাবিলা করে এসেছি। বিএনপিকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবিলা করার জন্য আওয়ামী লীগ একাই যথেষ্ট।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে চায়, দেশকে পেছনে নিয়ে যেতে চায়। আর বিএনপির আন্দোলন মোকাবিলা করে দেশকে আরও সামনের দিকে নিয়ে যেতে চায় আওয়ামী লীগ। বর্তমান সরকার বৈধ ও সাংবিধানিক সরকার। এ সরকার ক্ষমতায় থাকাকালে সরকারের দায়িত্ব হলো- সব মানুষের জানমালের নিরাপত্তা দেওয়া। কাজেই, আন্দোলন সংগ্রামের নামে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে দেওয়া হবে না বিএনপিকে।

নাটোরের জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য দেন নাটোর-২ (সদর ও নলডাঙ্গা) আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনের সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল, সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য রত্না আহমেদ, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক সংসদ সদস্য উম্মে কুলসুম স্মৃতি, সংসদ সদস্য শামীমা ইয়াসমিন, সংসদ সদস্য হোসনে আরা, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেনজীর আলম, পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানসহ অনেকে।  

এসময় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও কয়েক শতাধিক কৃষক উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২৫ ঘণ্টা, জুন ০২, ২০২২
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa