ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

শিল্প-সাহিত্য

সমরেশ বসু সাহিত্য স্মৃতি পদক পেলেন ৭ গুণীজন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৩২ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০১৬
সমরেশ বসু সাহিত্য স্মৃতি পদক পেলেন ৭ গুণীজন ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: বাংলা ভাষার কালজয়ী লেখক সমরেশ বসুর নামে প্রবর্তিত সাহিত্য পদক পেয়েছেন সাত গুণীজন।

পদকপ্রাপ্তরা হলেন- সাংবাদিকতায় সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, উপন্যাসে রাহাত খান ও ইমদাদুল হক মিলন, ছোটগল্পে আমজাদ হোসেন, অভিনয়ে মামুনুর রশীদ, সাংবাদিকতায় রেজানুর রহমান এবং ভ্রমণ-সাহিত্যে শাকুর মজিদ।

নাট্যসভার ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে শুক্রবার রাতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পদক তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমিরেটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি ও সংসদ সদস্য কাজী রোজী, অনুপম প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী মিলনকান্তি নাথ ও প্রকাশক শেখ মো. আজহার হোসেন।

সাবেক তথ্যসচিব সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন নাট্যসভার চেয়ারম্যান শহীদুল হক খান। পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি মামুনুর রশীদ।

ড. আনিসুজ্জামান বলেন, আজ যারা সম্মানিত হলেন, তারা সবাই সম্মানের যোগ্য। বাংলা সাহিত্যকে ওনারা সমৃদ্ধ করেছেন। যার নামে এ পুরস্কার তিনি তার ‘আদাব’ গল্পের জন্য বিখ্যাত। এক সময় তার গল্প পড়ে আমরা মুগ্ধ হয়েছি। তার নামে যাকে সম্মানিত করা হলো, আমার বিশ্বাস তারা নিজেদের সম্মানিত বোধ করবেন।

সদ্য প্রয়াত কথাসাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তিনি বলেন, বাংলা সাহিত্যে তার দৃষ্টান্ত এত গভীর যে, তাকে শ্রদ্ধা করতে হবে ও স্মরণ করতে হবে।

সমরেশ বসুকে স্মরণ করে বক্তারা বলেন, সমরেশ বসু ছিলেন বহুমাত্রিক লেখক। উপন্যাস, গল্প, ভ্রমণ নিয়ে তাঁর রচনার পরিমাণ বিপুল। বিচিত্র স্বাদের গল্প-উপন্যাসের জন্য তাঁর তুলনা মেলা ভার।

পশ্চিমবঙ্গের সাহিত্য যে দশটা উপন্যাসের উপর দাঁড়িয়ে আছে তার মধ্যে সমরেশ বসুর ‘গঙ্গা’ একটি। তার অসংখ্য ছোটগল্প বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছে। তিনি তার রচনায় বাঙালি মধ্যবিত্তের জীবনাচার সুচারুভাবে তুলে ধরেছেন। সমরেশ বসুকে ভুলে যাওয়া বাংলা সাহিত্যের পক্ষে সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২১ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০১৬
এমএফআই/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।