ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

শিল্প-সাহিত্য

ভাষাভিত্তিক ও নাটকের বইয়ের প্রকাশ কম

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২১
ভাষাভিত্তিক ও নাটকের বইয়ের প্রকাশ কম

বইমেলা থেকে: দুইদিন ছুটির পর কর্মব্যস্ত দিন হওয়ায় মেলার লোকসমাগমটা সেভাবে চোখে পড়েনি। তবে অনেকেই স্টলে স্টলে দেশের ঐতিহ্য-সংস্কৃতি নিয়ে প্রকাশিত বইয়ের খোঁজ করেছেন।

তবে মহান ভাষা আন্দোলন নিয়ে এবার নতুন বইয়ের সংখ্যা একেবারেই কম।

রোববার (২৮ মার্চ) পর্যন্ত মেলায় নতুন বই এসেছে এক হাজার ৩৮১টি। তবে তার মধ্যে ভাষাভিত্তিক এবং নাটকের বইয়ের সংখ্যা খুবই নগণ্য। এ নিয়ে লিখতে যেন বিরাট কার্পণ্য। যে কয়েকটি বই চোখে পড়লো, তার বেশিরভাগ পুরোনো লেখকদের। ভাষা আন্দোলন নিয়ে নতুন লেখকদের আগ্রহ কমই দেখা যাচ্ছে।

প্রকাশকদের মতে, ভাষা আন্দোলন এবং নাটকের বইয়ের পাণ্ডুলিপি পাওয়াই যায় না। মাসব্যাপী গ্রন্থমেলার অন্যতম উদ্দেশ্যই হলো অমর একুশেকে স্মরণ। সে কারণে অন্য বইয়ের ভিড়ে ভাষা আন্দোলনের বই রাখতে তারাও আগ্রহী। তবে নতুন লেখকদের মাঝে এ ধরনের লেখালেখির আগ্রহ কম।

বাংলা একাডেমির দেওয়া তথ্যমতে, শনিবার পর্যন্ত মেলায় নাটকের বই এসেছে মাত্র দু’টি। আর ভাষাভিত্তিক বইয়ের আলাদা কোনো ক্যাটাগরি না থাকায় তার হিসেব পাওয়া যায়নি। তবে তথ্য যাচাই করে দেখা যায়, তার সংখ্যাও হাতে গোনা ৩/৪টি। এগুলোর মধ্যে ভাষা নিয়ে আগামী প্রকাশনী থেকে মোজাম্মেল বিশ্বাসের 'দিনাজপুরের ভাষা আন্দোলন', টাঙ্গন থেকে আলী ছায়েদের ‘মাতৃভাষা ও বাংলা ভাষা আন্দোলন’ এবং নাটক নিয়ে অনিন্দ্য প্রকাশ থেকে ড. মুকিদ চৌধুরীরর ‘কর্নপুরান’ উল্লেখযোগ্য।

এ বিষয়ে আগামী প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ওসমান গনি জানান, ভাষা আন্দোলন নিয়ে পাণ্ডুলিপি পাওয়া যায় না। নতুন লেখকেরা গল্প-উপন্যাস, কবিতাগ্রন্থ এমনকি সায়েন্স ফিকশনও লেখেন। কিন্তু ভাষা আন্দোলন নিয়ে এক ধরনের অনাগ্রহ দেখা যায়। অবশ্য ভাষা আন্দোলনের প্রকৃত চিত্র তুলে ধরার মতো যথেষ্ট মেধা ও যোগ্যতার বিষয় এখানে গুরুত্বপূর্ণ।

প্রকাশকরা বলেন, আমরা সবসময়ই চাই ভাষা আন্দোলন এবং নাটক বিষয়ক বই প্রকাশ করতে। তবে মানসম্মত পাণ্ডুলিপি না পাওয়ার কারণে বই প্রকাশ করা সম্ভব হয় না। মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে উপন্যাস, গল্প লেখা হলেও ভাষা আন্দোলন নিয়ে তেমনটা দেখা যায় না। নাটকের সংখ্যাও অনেক কম। আমাদের দেশে হাতে গোনা কয়েকজনই মূলত এগুলো নিয়ে গবেষণা করেন, লেখালেখি করেন। এ বিষয়গুলোতে আরও অনেক গবেষণা হওয়া উচিত।

ভাষা এবং নাটক ছাড়াও বইমেলায় এখন পর্যন্ত গবেষণাভিত্তিক, বিশিষ্ট লেখকদের রচনাবলি, বিজ্ঞান বিষয়ক, ভ্রমণ বিষয়ক, ধর্মীয় এবং অনুবাদ সাহিত্যের প্রকাশ কম। তবে এসব বিষয়ে আগামী দিনগুলোতে নিত্য-নতুন বই আসবে বলেই মত প্রকাশকদের।

বাংলাদেশ সময়: ২০২২ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২১
এইচএমএস/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa