ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

বড় পর্দায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

শাহজাহান মোল্লা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০২ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১৪
বড় পর্দায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: মাঠে বসে যারা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলা দেখার সুযোগ পাচ্ছেন না তাদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচের টিকেট এখন সোনার হরিণ।

তাই দীর্ঘ লাইন ও টিকেট না পাওয়ার বিড়ম্বনা থেকে নগরবাসীকে  মুক্তি দিতে ২৫ ফুট বাই ১৫ ফুটের বড় এলইডি স্ক্রিনে খেলা দেখার সুবর্ণ সুযোগ করে দিচ্ছে (ডিএনসিসি)। রাজধানীর বিজয় সরণী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) বসানো হয়েছে বিশাল আকৃতির এলইডি স্ক্রিন। জনসাধারণের চাহিদা বিবেচনা করে আরো ২টি স্থানে এই এলইডি স্ক্রিন বসানো হবে।
 
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিএম এনামুল হক বাংলানিউজকে বলেন, নগরবাসীকে বিনোদন দিতে আমরা এই উদ্যেগ নিয়েছি। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহায়তায় বর্তমানে দু’টি পয়েন্টে এলইডি স্ক্রিন টিভি বসানো হয়েছে। এটি অনেক ব্যয়বহুল হলেও সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে এটি করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে দু’টি এলইডি স্ক্রিন টিভি বসানোর ফলে ক্রিকেট ভক্তদের চাহিদা বেড়ে গেছে। এখনও অনেক জায়গা থেকেই বলা হচ্ছে, আরো কিছু এলইডি স্ক্রিন টিভি বসানোর জন্য। তাই আমরা চিন্তাভাবনা করছি, আগামী ২৬ মার্চের আগেই মিরপুর কালসী রোডের কোনো এক ফাঁকা জায়গা এবং বনানী চেরারম্যানবাড়ির আশপাশের ফাঁকা জায়গায় আরো দু’টি এলইডি স্কিন বসাবো।
 
সিটি কর্পোরেশনের বাইরেও অন্য কোনো সংস্থা বা ক্লাবে বড় স্ক্রিন বসানো হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের কাছে এ ধরনের তথ্য নাই। তবে বিশ্বকাপ শুরুর আগে অনেকেই আবেদন করেছিলো।
 
এ ব্যাপারে উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী বিগ্রেডিয়ার (অব.) আবুল খায়ের ভূঁইয়া বাংলানিউজকে বলেন, আমরা দু’টি এলইডি বসিয়েছি। দিনের বেলায় খেলা হলে যেহেতু প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেখানো যাবে না তাই এলইডি স্ক্রিন বসিয়েছি। এখন দেখছি বেশীরভাগ খেলাই রাতের বেলায়। তাই আরো বেশী করে প্রজেক্টর বসানো যায় কি না চিন্তা করছি। এই মুহূর্তে ক্রিকেট ভক্তদের ব্যপক চাহিদা বাড়ছে এলইডি টিভি বা প্রজেক্টরের প্রতি। সবাই এক সঙ্গে বড় পর্দায় খেলা দেখার সুযোগ পেয়ে আনন্দিত।
 
তিনি বলেন, প্রথম দিকে বিভিন্ন ক্লাব ও সোসাইটি সংস্থা আমাদের কাছে প্রজেক্টর বসানোর আবেদন করেছিলো। বেসরকারিভাবে এগুলো বসানো হতে পারে। তবে সঠিক জায়গা ও সংস্থার নাম সিটি কর্পোরেশনের কাছে নেই।
 
ক্রিকেট ভক্তরা চাইলে এখন প্রতিটি খেলা সবচেয়ে বড় স্ক্রিনে দেখতে পাবেন। শুধু খেলা দেখানোর চিন্তা করেই এ সিন্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যে দিন খেলা থাকবে না সেদিন এলইডি স্ক্রিন টিভি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিটি কর্পোরেশন। এসব বড় পর্দায় খেলা দেখানোর পাশাপশি দেশাত্মবোধক গান ও বিনোদনমূলক বিভিন্ন অনুষ্ঠান দেখানো হচ্ছে। তাই এখন শুধু মাঠে বসে খেলা দেখা নয় ক্রিকেট প্রেমীরা চাইলে চলে আসতে পারেন বিজয় সরণী ও টিএসসিতে। মাঠে খেলাদেখার স্বাদ বড় পর্দায় মিটবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১৪

** টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রান তামিমের

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa