ঢাকা, সোমবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সূচনা হলো কলকাতায়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৩
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সূচনা হলো কলকাতায়

কলকাতা: মহান শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনে, ভাষা উৎসবের প্রথম দিনের সন্ধ্যায় মিশন প্রাঙ্গণের বঙ্গবন্ধু মঞ্চে মুক্তিযুদ্ধের উপর নির্মিত নাটক ‘লাল জমিন’ মঞ্চায়িত করে।

নাটকটি মূলত, মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধোত্তর বাংলাদেশে এক নারীর সংগ্রামী জীবনের নাট্যপ্রকাশ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ভাষা ও সংস্কৃতি ভিত্তিক জাতীয়তাবাদের উন্মেষ ঘটে। ৫২-র সংগ্রামের চূড়ান্ত অর্জিত হয় ৭১ এর স্বাধীনতার মধ্য দিয়ে। বঙ্গবন্ধুর অবিসংবাদিত নেতৃত্বে বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের প্রেক্ষিতে উপ হাইকমিশনের নিবেদনের প্রতিপাদ্য ছিল ৫২ প্রেরণায় ৭১ এর স্বাধীনতা।

অপরদিকে, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে একদিন আগে থেকেই কলকাতায় শুরু হয়েছে ভাষা উৎসব। প্রতিবারের মতো রবীন্দসদনের উত্তরে আকাদেমি অব ফাইন আর্টসের সামনে রানুছায়া মঞ্চে টানা ২৫ বছর ধরে রাতব্যাপী বাংলা ভাষা উৎসব পালন করে আসছে ভাষা ও চেতনা সমিতি। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

এ উপলক্ষ্যে সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি) এক শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুরু হয়। বাংলাদেশ, আসাম, ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গের ২০০র বেশি শিল্পী এ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মধ্যরাতে মশাল মিছিল-সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান চলবে সারা রাত। শেষ হবে পরদিন ২১ ফেব্রুয়ারি অব্দি। এদিন জঁমকালো আয়োজন থাকলেও মূল অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে গত শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) থেকে।

উৎসব উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের কিংবদন্তী নাট্যকার মামুনুর রশীদ, সঙ্গীত শিল্পি প্রতুল মুখোপাধ্যায়-সহ দুই বাংলার বিশিষ্টরা।  

মামুনুর রশীদ বলেন, আমি মনে করি এপার-ওপার বাংলা বলে কিছু নেই। বাঙালি যেখানে সেখানে বাংলা ভাষার অস্তিত্ব বিদ্যমান। সে কারণে প্রতিবার আমি আসি কলকাতায়। বুকের রক্ত দিয়ে বাংলা ভাষাকে রক্ষা করেছি। কলকাতা পৃথক করে ভাবি না। সে কারণে বাঙালির ভাষা উৎসবে কলকাতায় আসা।

এছাড়া ২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে আগামীকাল পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে দিনটি স্মরণ করবে বিভিন্ন সংস্থা ও রাজ্য সরকার। পাশপাশি কলকাতাস্থিত বাংলাদেশ উপদূতাবাস ভোরবেলা জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতর মধ্যে দিনব্যাপি দিবসটি পালন করবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৪ ঘণ্টা, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩
ভিএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।