ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

মমতাকে বিজেপির সভাপতির তীব্র আক্রমণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫১ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০১৪
মমতাকে বিজেপির সভাপতির তীব্র আক্রমণ

কলকাতাঃ সারদা কাণ্ড এবং অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র আক্রমণ করেছেন ক্ষমতাসীন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ।

তিনি অভিযোগ করেন, বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের আশ্রয় দিচ্ছে মমতার সরকার।

আর বর্ধমান বিস্ফোরণে ভারতের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএ’র তদন্তে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস বাধা দিচ্ছে।

সারদা চিট ফান্ডের টাকা দিয়ে বর্ধমান বিস্ফোরণে ঘটানো হয়েছে এমন দাবি করে অমিত শাহ, বাংলাদেশের মানুষও এই সন্ত্রাসবাদীদের গ্রহণ করে না। কিন্তু তাদের বাঁচাতে চাইছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি বলেন, আগামী দিনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি সরকার তৈরি হবে। ভারতের পূর্ব ভাগকে উন্নত করতে হলে অর্থনৈতিকভাবে উন্নত করতে হবে পশ্চিমবঙ্গকে।

বিজেপির প্রভাবশালী এই নেতা বলেন, সিপিএম পশ্চিমবঙ্গের উন্নতি করতে পারেনি, তৃণমূল কংগ্রেসও চূড়ান্ত ব্যর্থ। বিজেপি একমাত্র দল যারা পশ্চিমবঙ্গের উন্নতি করতে পারে।

তার অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার কেন্দ্রের সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করছে না। সমস্ত উন্নতির কাজে বাঁধা দিচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস।

তিনি বলেন, একদিকে ভারত নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে কিন্তু পিছিয়ে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ।

কলকাতা ‌আগামী পৌরসভা নির্বাচনে তিনি বিজেপিকে জয়যুক্ত করার আহ্বান করেন।

অমিত শাহ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলেন, আমি বিজেপির এক কর্মী, আমাকে চিনে রাখুন। আমি পশ্চিমবঙ্গে এসেছি তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করতে।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক সভায় প্রশ্ন করেছিলেন , কে এই অমিত শাহ?

বিজেপির সভাপতি বলেন, কলকাতা থেকে শুরু হবে পরিবর্তন। আগামী দেড় বছরের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে পরিবর্তন দেখা দেবে।

সভায় স্লোগান ওঠে শক্তিশালী বিজেপি, শক্তিশালী পশ্চিমবাংলা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫২ ঘণ্টা, ৩০ নভেম্বর, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।