ঢাকা, বুধবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ২

রক্তিম দাশ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১, ২০১১

কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে নির্বাচনী সন্ত্রাসে নিহত হয়েছেন একজন সিপিএম ও একজন তৃণমূল কর্মী। শুক্রবার রাজ্যজুড়ে বিক্ষিপ্তভাবে নির্বাচনী সহিংতার খবর পাওয়া গেছে।



শুক্রবার সকালে অশোক মন্ডল নামে এক তৃণমুল কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তৃণমূলের অভিযোগ তাকে খুন করেছে সিপিএম আশ্রিত সন্ত্রাসীরা। এছাড়াও হাওড়ার বুকলতলায় এক তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে আগুন লাগানোর খবর পাওয়া গেছে। এই ঘটনার দেবু দা নামে এক সিপিএম কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

দিনের সবচেয়ে ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুরে। সিপিএমের ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কমিশনার জামিল আখতারকে সকাল ৮টার সময় প্রকাশ্যে গুলি করে খুন করা হয়।

মাঠপাড়া এলাকার একটি চায়ের দোকানে ওই সময় তিনি বসেছিলেন। সাইকেল আরোহী দুই জন সন্ত্রাসী পিছন থেকে তার মাথায় গুলি করে। ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। খুনের অভিযোগ তৃণমুলের দিকে। তার মৃতদেহ নিয়ে বিক্ষোভ করেছে উত্তেজিত জনতা।

এই ঘটনার প্রতিবাদে সড়ক ও রেললাইন অবরোধ করে স্থানীয়রা। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দিতে গেলে জনতা পুলিশের জিপ ভাংচুর করে। অবরোধ চলে টানা তিন ঘন্টা। পরে সিপিএম নেতাদের আশ্বাসে জনতা অবরোধ তুলে নেয়।

এই ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার জেলায় হরতালের ডেকেছে সিপিএম।

এদিকে, শুক্রবার ভোরে জঙ্গলমহলে মাওবাদীদের শিবির থেকে প্রচুর অস্ত্র উদ্ধার করেছে যৌথবাহিনী। নিরাপত্তার স্বার্থে ভোটের আগে এই অঞ্চলে চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছে যৌথবাহিনী। শালবনি কলসীডাঙা ও লালগড় থেকে বেশ কয়েকটি রাইফেল, ল্যান্ডমাইন ও মাইন তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa