ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

ইরান-ইসরায়েল উত্তেজনায় বিকল্পভাবে পণ্য আমদানির চেষ্টা করছি: প্রতিমন্ত্রী

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৯ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
ইরান-ইসরায়েল উত্তেজনায় বিকল্পভাবে পণ্য আমদানির চেষ্টা করছি: প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা: মধ্যপ্রাচ্যে ইরান ও ইসরায়েলের মধ্যকার চলমান উত্তেজনায় দেশে যাতে আমদানিনির্ভর পণ্যের দাম না বাড়ে, সেজন্য বিকল্পভাবে পণ্য আমদানি করার চেষ্টা করছেন বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে মিট দ্য রিপোর্টার্সে তিনি এ কথা জানান।

ডিআরইউ সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির সভাপতি সৈয়দ শুকুর আলী শুভ। উপস্থিত ছিলেন ডিআরইউ নির্বাহী কমিটির সদস্যসহ গণমাধ্যমকর্মীরা।  

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন, হামাস-ইসরায়েল বা ইরান-ইসরায়েল হামলা, এসব আন্তর্জাতিক ঘটনা। তবুও এসবের কারণে জ্বালানির দাম বেড়ে যায়। এতে পরিবহন খরচ বাড়ে, যার প্রভাব পড়ে নানা পণ্যে। আমদানি-রপ্তানিতে সংকট তৈরি হয়। তবে ইসরায়েলে ইরানের হামলা হঠাৎই, এটি আমাদের জানা ছিল না।

তিনি বলেন, মধ্যপ্রাচ্য গুরুত্বপূর্ণ, সেখান থেকে জ্বালানি তেলসহ অন্যান্য পণ্য আসে। ইসরায়েল আবার ইরানে পাল্টা হামলা চালাবে কি না জানি না। তবুও সব বিষয় মাথায় রাখা হচ্ছে। এসবের কারণে যাতে পণ্যের দাম না বাড়ে, সেজন্য আমরা বিকল্পভাবে পণ্য আমদানি এবং সরবরাহ ব্যবস্থা ঠিক রাখার চেষ্টা করছি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার ভোক্তাবান্ধব। কোনোভাবেই সরকারকে আমি ব্যবসায়ীবান্ধব বলবো না। আমরা ব্যবসায়ীদের সর্বোচ্চ সুবিধা দেবো যতক্ষণ তারা ভোক্তাকে সাহায্য করবে এবং রীতির মধ্যে থাকবে। আমরা জনগণের স্বার্থে কাজ করতে চাই, যাতে সাধারণ মানুষ সন্তুষ্ট থাকে।  

তিনি বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বড় কাজ হলো দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করা, এর সঙ্গে আমদানি- রপ্তানি, দ্বিপাক্ষিক পলিসি নিয়ে কাজ করছি। ট্যারিফ পলিসি নিয়ে কাজ চলছে, আমদানি-রপ্তানি নীতিমালা চূড়ান্ত হয়েছে। অফিসিয়ালি লঞ্চ (আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু) করব। আমরা বহুমুখী কাজ করছি। সেজন্য আপনাদের সহযোগিতা চাই।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
জিসিজি/আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।