ঢাকা, রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

১৩ ঘণ্টায় আইসিডিআরবি’তে ২৮২ রোগী

মাজেদুল নয়ন, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০১৪
১৩ ঘণ্টায় আইসিডিআরবি’তে ২৮২ রোগী ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আইসিডিডিআরবি থেকে: শনিবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে রোববার দুপুর ১টা পর্যন্ত ১৩ ঘণ্টায় ২৮২ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি)তে ভর্তি হয়েছে। ঘণ্টায় গড়ে ২২ জন করে রোগী আসছে মহাখালীতে অবস্থিত এ হাসপাতালে।



রোববার হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে একটি বাড়তি ওয়ার্ড এবং তাবু টানানো রয়েছে। গত সপ্তাহের চেয়ে পরিস্থিতি কিছুটা উন্নত হলেও, সন্তোষজনক নয় বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

হাসপাতালের রেজিস্ট্রেশন খাতায় থেকে জানা যায়, শনিবার ২৪ ঘণ্টায় রোগী ভর্তি হয়েছে ৬৭২ জন।

তাবু আর বাড়তি ওয়ার্ড ছাড়াও রাতে বারান্দায় থাকছেন রোগীরা। রোগী আর সঙ্গে আসা আত্মীয়স্বজনদের ভিড় সামলাতে বেশ কষ্ট পোহাতে হচ্ছে আইসিডিডিআরবিকে।

হাসপাতালের রোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বারিধারা, গুলশান, লালবাগ, যাত্রাবাড়ী, তেজগাঁও এবং মিরপুর এলাকা থেকেই আসছেন বেশিরভাগ রোগী।  

রাজধানীতে প্রচণ্ড গরমে পানির সঙ্কট থেকেই বিশুদ্ধ পানির অভাব হচ্ছে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

ডায়রিয়া বৃদ্ধির কারণ হিসেবে গরমে রাস্তায় এবং ফুটপাতের পানীয়কে দায়ী করেছেন উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রফেসর অব সার্জন ডা. ফিরোজ কাদের।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, গরম বাড়ার কারণে আমাদের শ্রমজীবী ও নিম্নজীবী মানুষেরা রাস্তায় আখের রস, লেবুর শরবত পান করেন। এসব পানি মোটেও বিশুদ্ধ নয়। শরবতে মাছের জন্যে বা লাশের জন্যে রাখা বরফ দেওয়া হয়, যা পেটের জন্যে মারাত্মক ক্ষতিকর। এটিই ডায়রিয়া বৃদ্ধির অন্যতম কারণ।

তিনি বলেন, এছাড়াও আমাদের দরিদ্র শ্রেণীর লোকেরা রান্না করা খাবার পরবর্তীতে ফ্রিজে রাখতে পারছেন না। ফলে গরমে অনেক সময় খাবার নষ্ট হয়ে যায় এবং সেটি খেয়ে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হন মানুষ।

এজন্যে রাস্তার শরবত ধরনের পানীয় গ্রহণ না করা এবং রান্না করা খাবার দেরিতে না খাওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

ধানমণ্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, শুধুমাত্র বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা গেলেই ডায়রিয়া প্রতিরোধ করা সম্ভব। বড় ছোট সকলেরই দিনে অল্প সময়ের মধ্যে যদি কয়েকবার পাতলা পায়খানা হয়, তবে সঙ্গে সঙ্গে স্যালাইন খাওয়া শুরু করতে হবে।

এ সময় শরীর থেকে পানি চলে যায় এবং গরমের কারণে শরীর দূর্বল হয়ে পড়ে। তাই যতো দ্রুত সম্ভব রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে বলেও পরামর্শ দেন তিনি।

বাংলাদেশ সময় ১৪১১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa