ঢাকা, সোমবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভারত

মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড পেলেন ক্রীড়া সংগঠক তরফদার রুহুল আমীন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২১ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০২২
মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড পেলেন ক্রীড়া সংগঠক তরফদার রুহুল আমীন

কলকাতা: ২৩তম আন্তর্জাতিক মাদার তেরেসা অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় ক্রীড়াপ্রেমী তরফদার মো. রুহুল আমিন। ক্রীড়াজগতে বিশেষ অবদানের জন্য এ সম্মাননায় ভূষিত করা হয়েছে তাকে।

 

প্রসঙ্গত, বেশ নামডাকের সঙ্গেই বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবল অঙ্গনে পা রেখেছিল তার তৈরি সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব।

মাদার তেরেসার ১১২তম জন্মদিবস উপলক্ষে শুক্রবার (২৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় কলকাতার সেন্ট জেমস স্কুল অডিটোরিয়ামে ক্রীড়াজগতে অবদানের জন্য এ সম্মাননা তার হাতে তুলে দেন পশ্চিমবঙ্গের সাবেক রাজ্যপাল জাস্টিস শ্যামল। পুরস্কার হিসেবে তরফদারের হাতে তুলে দেওয়া হয় একটি মানপত্র, মাদার তেরেসার ছবিসহ স্মারক, কলকাতার নানাবিধ মিষ্টি ও উত্তরীয়।

সম্মাননা গ্রহণ করে তরফদার বলেন, মাদার তেরেসার নামাঙ্কিত এ পুরস্কার পেয়ে আমি গর্বিত। এটা অনুভব করার মতো বিষয়। মাদার তেরসার মতো একজন ব্যক্তির নামাঙ্কিত সম্মননা পেয়ে আমি আনন্দিত।

তিনি আরও বলেন, আমরা চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেডের কাজ করছি। আবাহনী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পুত্র ক্যাপ্টেন শেখ কামাল। যিনি বাংলাদেশকে স্বাধীনতার পরবর্তীতে যুবসমাজকে একত্রিত করতে আধুনিক ফুটবল প্রবর্তন করেছিলেন। আধুনিক স্পোর্টস প্রবর্তন করেছিলেন। ক্রীড়া জগতে আধুনিক সংস্কৃতি প্রবর্তন করেছিলেন। তার এ অনুপ্রেরণাকে বুকে ধারণ করে দীর্ঘদিন ধরে স্পোর্টস ও ফুটবল নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। বিভিন্ন স্পোর্টস অঙ্গনে কাজ করে চলেছি। সেটার স্বীকৃতি স্বরূপ আন্তর্জাতিকভাবে আজকে মাদার তেরেসা ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করলাম। এটা আসলে অত্যন্ত আনন্দের ও খুবই সুখকর মুহূর্ত। এটা পাওয়াতে যেটা হলো আমরা যারা কাজ করি কাজের স্পৃহা আরও বেড়ে যাবে। সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমরা আরও কাজ করতে পারব।

অনুষ্ঠানে বিশিষ্টজনদের মধ্যে এদিন উপস্থিত ছিলেন- জাস্টিস শ্যামল সেন, লেফট্যানেন্ট জেনারেল রানা প্রতাপ কালিটা, কলকাতাস্থত বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের ভিসা প্রধান মহম্মদ বশির উদ্দিন, প্রেস সচিব রঞ্জন সেনসহ বিশিষ্টজনেরা।

একইসঙ্গে এদিন এ সম্মাননা পান কলকাতার ইন্দ্রজিত দাশগুপ্ত, ব্রততী ভট্টাচার্য সত্যজিত ব্যনার্জী (প্রশাসনিক), রাচেল ইলিয়াস, হার্সিদ চোকানি (শিক্ষা), ডা. সুমিত পোদ্দার (ফিজিশিয়ান), অঞ্জন বোস (মিডিয়া), প্রদীপ কুমার হাজরা (শিল্পপতি)সহ ভারতের বিভিন্ন জগতের বিশিষ্ট জনেরা।

বাংলাদেশ সময়: ০১১৮ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০২২
ভিএস/এইচএমএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa