ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

ইসলাম

৬ বছর ৮ মাস বয়সে পুরো কোরআন মুখস্থ!

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০১৭
৬ বছর ৮ মাস বয়সে পুরো কোরআন মুখস্থ! আয়েশা সিদ্দিকা সুহাইমা। বয়স ৬ বছর ৮ মাস বয়সে পুরো কোরআন মুখস্থ করে হাফেজ হওয়ার খেতাব অর্জন করেছে

আয়েশা সিদ্দিকা সুহাইমা। বয়স মাত্র ৬ বছর ৮ মাস। এই বয়সেই সে পুরো কোরআনে কারিম মুখস্থ করে হাফেজ হওয়ার খেতাব অর্জন করেছে। 

কোরআনের হাফেজ সুহাইমা ঢাকা টিকাটুলির মারকাজুল হাফেজা ইন্টারন্যাশনাল বালিকা মাদরাসার ছাত্রী। তার পিতা ক্বারী সালামাতুল্লাহ ওই মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক।

সুহাইমার আম্মা হাফেজ আবেদা সুলতানা ওই মাদরাসার শিক্ষিকা ও পরিচালিকা।  

এতো কম বয়সে মেয়েদের হাফেজ হওয়ার ঘটনা বিরল। বাংলানিউজের কাছে এমনই দাবী করেন সুহাইমার বাবা ক্বারী সালামাতুল্লাহ।  

সুহাইমা ও তার পিতা ক্বারী সালামাতুল্লাহ
সুহাইম তার বাবা-মা’র কাছেই কোরআন মুখস্থ করেছে। পিতা-মাতার নিবিঢ় তত্ত্বাবধানে ৩০ পারা কোরআন মুখস্থ করতে তার সময় লেগেছে মাত্র ১ বছর। এতো কম বয়স ও সময়ে কোরআনে কারিম মুখস্থ করার পেছেনে বাবা-মা শিক্ষকদের উৎসাহ তার অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করেছে।  

সুহাইমের গ্রামের বাড়ি কক্সবাজার জেলার মহেষখালী থানার মুন্সিরডেইল গ্রামে। সে সবার কাছে দোয়া প্রার্থী। বড় হয়ে সুহাইম কোরআনে কারিমের বহুমুখি খেদমত করতে চায়।  

উল্লেখ্য, মারকাজুল হাফেজা ইন্টারন্যাশনাল বালিকা মাদরাসার থেকে চলতি বছর একসঙ্গে ৮ জন ছাত্রী কোরআনের হাফেজ হয়েছে। কোনো মাদরাসা থেকে একসঙ্গে ৮ জন ছাত্রীর হাফেজ হওয়ার ঘটনা বাংলাদেশে এই প্রথম।

আগামী ৩১ মার্চ হাফেজ ছাত্রীদের বিশেষেভাবে পুরস্কৃত করা হবে।

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৫২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০১৭
এমএইউ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।