ঢাকা, রবিবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২১ শাবান ১৪৪৫

জাতীয়

খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে দুই ফসলি জমি রক্ষায়ও সরকার বদ্ধ পরিকর: ভূমি সচিব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৪১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০২৩
খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে দুই ফসলি জমি রক্ষায়ও সরকার বদ্ধ পরিকর: ভূমি সচিব

ঢাকা: দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে দুই ফসলি জমি রক্ষায়ও সরকার বদ্ধ পরিকর বলে জানিয়েছেন ভূমি সচিব মো. খলিলুর রহমান।

বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত 'বাংলাদেশ ও বৈশ্বিক প্রেক্ষিতে জলবায়ু পরিবর্তন এবং জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ঝুঁকি' শীর্ষক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

কর্মশালায় ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।

ভূমি সচিব বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ভূ-প্রাকৃতিক যে পরিবর্তন সাধিত হচ্ছে, তাতে ভূমি মন্ত্রণালয় অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ভূমি জোনিং প্রকল্প সমগ্র বাংলাদেশের মৌজা ভিত্তিক ডিজিটাল জোনিং ম্যাপ প্রণয়নের কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়া, ডিজিটাল ভূমি জরিপ করার জন্য কোরিয়ান আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় ইডিএলএমএস প্রকল্পের আওতায় ‘বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে’ কার্যক্রম ৬টি এলাকায় কাজ করছে।

এসব কাজ বাস্তবায়নের ফলে ভূমি মন্ত্রণালয় যেমন একদিকে ভূমি ব্যবস্থাপনায় আধুনিক সেবা নিশ্চিত করছে, তেমনি জলবায়ু পরিবর্তনে সরকারকে সঠিক তথ্য উপস্থাপনে সাহায্য করতে পারছে বলে ভূমি সচিব মনে করেন।

তিনি বলেন, জলবায়ু মোকাবিলায় সরকারের কাজের সফলতার স্বীকৃতি স্বরূপ দুবাইতে চলমান জলবায়ু সম্মেলন (কপ-২৮)-এ বাংলাদেশ বৈশ্বিক অভিযোজন অ্যাওয়ার্ড লাভ করেছে।

সরকার দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে তিন ফসলি জমি সুরক্ষায় এ ধরনের জমিতে কোনো ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ না করার নীতিগত সিদ্ধান্ত ইতোপূর্বে নিয়েছে।

ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ইশরাত ফারজানার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কর্মশালায় বক্তা হিসেবে ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্বাছ উদ্দিন এবং উপসচিব এ টি এম আজহারুল ইসলাম।

কর্মশালার শেষ পর্বে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তারা জলবায়ু সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মিথস্ক্রিয়ায় অংশ নেন। কর্মশালায় জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি ও প্রভাব, ঝুঁকি মোকাবিলায় করণীয় এবং অভিযোজন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণে ভূমি মন্ত্রণালয়ের করণীয় বিষয়ে সুপারিশমালা প্রণয়ন ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০০৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০২৩
জিসিজি/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।