ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

বৃহস্পতিবার থেকে পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০
বৃহস্পতিবার থেকে পাবনায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট 

পাবনা: সড়কে চাঁদাবাজিসহ শ্রমিকদের মারধরের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকাল ৬টা থেকে পাবনার সব রুটে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পাবনা জেলা মটর মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

দীর্ঘদিন ধরে পাশবর্তী সিরাজগঞ্জ জেলার অন্তর্গত শাহাজাদপুর উপজেলার মটর মালিক ও শ্রমিকরা যৌথভাবে পাবনা থেকে ঢাকাগামী সব পরিবহনের শ্রমিকদের সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছেন।

এরই প্রতিবাদে এ পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পাবনা জেলা মটর মালিক ও শ্রমিকরা।

পাবনা জেলা মটর মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ধর্মঘট চলাকালে পাবনা থেকে ঢাকাসহ উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের সব রুটে সব ধরনের পরিবহন চলাচল বন্ধ থাকবে। চলমান সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর মহাসড়ক দিয়ে পাবনার সব বাস ঢাকায় যাতায়াত করে। কিন্তু মাঝে-মধ্যেই সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের বাস মালিক-শ্রমিকরা পাবনার বাস চালক ও শ্রমিকদের মারধর করেন। পাবনার বাসগুলোকে তাদের আগে যেতে দেয় না। গত ২৪ ডিসেম্বর একইভাবে পাবনা এক্সপ্রেসের দুই সহকারীকে মারধর করেন বাস মালিক-শ্রমিকরা। শুধু এ বিষয় না মহাসড়কে চলাচলের জন্য শাহাজানপুরে চাঁদা দিতে হয়। এ বিষয়ে বহুবার তাদের সঙ্গে অলোচনা হয়েছে কিন্তু কোনো স্থায়ী সমাধান হয়নি। আমরা এ বিষয়ে মালিক এবং শ্রমিকরা ব্যাপক ভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছি। পাবনা জেলার পরিবহন ব্যবসা দীর্ঘদিনের এর একটি ঐতিহ্য রয়েছে। আমাদের বাস চলে সারাদেশে। আর শাহাজাদপুরের সামান্য কয়েকটি বাস সেটি নিয়ে আমাদের সঙ্গে তারা ঝামেলা করছে। অন্যায় ভাবে ও জোর করে ভালো কিছু হয় না। আমরা এ সমস্যার সমাধানের জন্য এ পরিবহন ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, গত ২৭ ডিসেম্বর পাবনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রশাসনের কাছে বিষয়টির স্থায়ী সমাধান দাবি করে পাবনার পরিবহন মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। সেখান থেকে তিনদিনের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছিল। এর মধ্যে বিষয়টির কোনো সমাধান না হওয়ায় বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত উদ্ভূত সমস্যার সমাধান না হওয়ায় এ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।

আমাদের এ কর্মসূচি সরকারের বিরুদ্ধে নয়। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের বাস মালিক শ্রমিকদের বিরুদ্ধে। আমরা স্থায়ী সমাধান দাবি করছি। সমাধানের লক্ষ্যে প্রশাসন যেকোনো সময় আমাদের ডাকলে আমরা বসতে প্রস্তুত আছি। সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট চলবে বলে জানান মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক হাবিবুর।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa