ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

রাজনীতি

বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য উন্মাদের মতো কথা বলছে: শাজাহান খান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০২২
বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য উন্মাদের মতো কথা বলছে: শাজাহান খান ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য উন্মাদের মতো কথা বলছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।

তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর বললেন, উনি নাকি মুক্তিযোদ্ধা।

তার বাবা ছিলেন মুসলিম লীগের সভাপতি, পিস কমিটির নেতা। তাহলে তিনি (ফখরুল) কীভাবে মুক্তিযোদ্ধা হন? আবার বলে, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি (খালেদা জিয়া) ছিলেন ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের ভেতর। সেখানে তিনি (খালেদা জিয়া) পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর জানজুয়ার আতিথেয়তায় ছিলেন। তিনি কীভাবে মুক্তিযুদ্ধ করলেন? আবার বলে, তারেক জিয়া শিশু মুক্তিযোদ্ধা। এটা একটা হাস্যকর ব্যাপার। মানুষ পাগল হলে, উন্মাদ হলে এসব কথা বলে। বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য উন্মাদের মতো এসব কথা বলছে।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগের (বিটিজিডব্লিউএল) ১৩তম সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শাজাহান খান বলেন, বিএনপি হাওয়া ভবনের কাছে বাংলাদেশকে জিম্মি করতে চায়, দুর্নীতির কাছে বাংলাদেশকে বিক্রি করতে চায়, যারা হাজার হাজার, লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে, তাদের কাছে বিলিয়ে দিতে চায়। এদেশে কোনো বোমাবাজদের খেলা খেলতে দেওয়া হবে না। শ্রমিকরা প্রধানমন্ত্রী ব্যতীত অন্য কোনো নেতৃত্ব মেনে নেবে না। এ দেশে স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের সঙ্গে কোনো জাতীয় ঐক্য হবে না।

নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সরকার পরিবর্তন হবে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, জনগণ যদি শেখ হাসিনাকে ভোট দেয়, তাহলে উনি ক্ষমতায় থাকবেন। জনগণ যদি ভোট না দেয়, তাহলে উনি ক্ষমতা ছেড়ে দিবেন। ২০০১ সালে বিজয় লাভ করতে না পারায় শেখ হাসিনা বিএনপির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিলেন। কোনো সমস্যা হয়নি। সুতরাং আপনারা (বিএনপি) সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছেড়ে নির্বাচনে আসেন।

বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বাংলার মানুষ জীবিত থাকতে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানাতে পারবেন না। আমরা সেটা হতে দেব না। জীবন দিয়ে যেমন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করে দেশ স্বাধীন করেছি, সেই স্বাধীনতাকে আমরা রক্ষা করবো। আমাদের রক্ত যাবে, জীবন যাবে, কিন্তু আমরা কোনো বানরের ভেংচির কাছে মাথা নত করবো না। সেই ভেংচি দিয়ে আমাদের লাভ নেই।

শেখ হাসিনাকে বিশ্বের একমাত্র শ্রমিকবান্ধব প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা চেয়েছেন বলেই শ্রমিকরা আজ জীবন-মান নিয়ে ভালো আছে, সুখে আছে।

বিটিজিডব্লিউএলের সভাপতি জেড এম কামরুল আনামের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মহিলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য সামছুন্নাহার ভূঁইয়া।  

এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ হোসেন, স্কপ লিডার চৌধুরী আশিকুল ইসলাম, বিটিজিডব্লিউএলের কার্যকরী সভাপতি কামরুল আলম বেলাল, সাধারণ সম্পাদক সাহাবউদ্দীন চৌধুরী, সহ-সভাপতি লায়ন ইমাম হোসেন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০২২
এসসি/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa