ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রবাসে বাংলাদেশ

লন্ডনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন শুরু

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৫৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০২১
লন্ডনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন শুরু

ঢাকা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের অমর শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানানের মধ্য দিয়ে লন্ডনের বাংলাদেশ হাই কমিশনে গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তি উদযাপন শুরু হয়েছে।  

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম দূতাবাসের সিনিয়র কর্মকর্তাদের নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে নয় মাসব্যাপী বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন।

 

শুক্রবার (২৬ মার্চ) লন্ডনের বাংলাদেশ হাইকমিশন এ তথ্য জানায়।

সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে হাইকমিশনার জাতির পিতা ও স্বাধীনতা যুদ্ধের সব শহীদকে গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।  

তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, তাঁর অসাধারণ নেতৃত্বে বাংলাদেশে ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, গণতন্ত্র, ধর্ম নিরপেক্ষতা, বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং সামাজিক ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আজ তাঁরই নেতৃত্বে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর 'সোনার বাংলা’য় পরিণত হওয়ার দিকে দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

২০২১ সালে বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপনের কথা উল্লেখ করে হাইকমিশনার দু'দেশের মধ্যে বিরাজমান বন্ধুত্ব ও সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক আগামী দিনগুলোতে আরো সুদৃঢ় হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  

তিনি ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে এবং পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের উন্নয়নে যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ডে বসবাসকারী বাংলাদেশিদের অসাধারণ অবদানের কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন।

জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে প্রদত্ত রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শুনানো হয়।  

পরে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্য ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে জীবন উৎসর্গকারী শহীদদের আত্মার মাগফিরাত এবং দেশের শান্তি ও অব্যাহত অগ্রগতি কামনা করে দোয়া করা হয়।  

স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তি দিবসের অনুষ্ঠানে বিশেষ আয়োজন হিসেবে লন্ডন সময় বিকেল ৩টায় লন্ডন হাইকমিশন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যের পঞ্চাশ বছরের কূটনীতিক সম্পর্ক  শীর্ষক এক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এ অনুষ্ঠানে ব্রিটিশ মন্ত্রী, এমপি ও রাজনীতিবিদসহ ব্রিটিশ ও ব্রিটিশ-বাংলাদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশ করছেন।

এছাড়া হাইকমিশনার ও টাওয়ার হেমলেটসের মেয়র জন বিগস সকালে ‘বাংলা টাউন’ নামে খ্যাত পূর্ব লন্ডনের ঐতিহাসিক আলতাব আলী পার্কে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে লন্ডনে নয় মাসব্যাপী বাংলাদেশের স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরপূর্তি উদযাাপনের সূচনা করেন।

সূবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ হাইকমিশন ভবনকে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার লাল-সবুজের আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হয়েছে। এ উপলক্ষে বিখ্যাত লন্ডন আইকেও লাল-সবুজে আলোকিত করা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের রাজকীয় গির্জা ‘ওয়েস্ট মিনস্টার অ্যাবে’-র শীর্ষে  উত্তোলন করা হয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৩৫২ ঘণ্টা, মার্চ ২৭, ২০২০
টিআর/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa