ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

পর্যটন

পর্যটক বরণে প্রস্তুত বান্দরবানের হোটেল-মোটেল ও ট্যুরিস্ট যান

কৌশিক দাশ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৮ ঘণ্টা, জুলাই ৯, ২০২২
পর্যটক বরণে প্রস্তুত বান্দরবানের হোটেল-মোটেল ও ট্যুরিস্ট যান

বান্দরবান: ঈদুল আজহার ছুটিতে প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটবে পাহাড়কন্যা বান্দরবানে। ইতোমধ্যে বুকিং হচ্ছে জেলার অনেক হোটেল-মোটেল, রিসোর্ট আর গেস্টহাউস।

পর্যটক বরণে সার্বিক প্রস্ততি নিচ্ছে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। গত কয়েক বছর করোনার কারণে পর্যটকদের আশানুরূপ আগমন ঘটেনি পার্বত্য জেলা বান্দরবানে। তবে এবছর করোনার বিধিনিষেধ না থাকায় এবং ঈদের কয়েকদিন ছুটি থাকায় প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটবে পর্যটন নগরী বান্দরবানে এমনটাই প্রত্যাশা পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের।

ছুটির দিনে অবকাশ যাপনে পাহাড়প্রেমীরা ছুটে যায় পাহাড়কন্যা বান্দরবানের মেঘলা, নীলাচল, চিম্বুক, শৈলপ্রপাত, নীলগীরিসহ বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে। পরিবার-পরিজন, আর বন্ধুবান্ধব নিয়ে চাঁদের গাড়িতে করে ঘুরে বেড়ায় এক পাহাড় থেকে আরেক পাহাড়ে। এবারও ঈদের ছুটিতে প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটবে বান্দরবানে এমনটাই প্রত্যশা ব্যবসায়ীদের।

বান্দরবানের আবাসিক হোটেল হিলভিউয়ের ম্যানেজার মো.পারভেজ বলেন, এবারের ঈদের বন্ধে আমাদের হোটেলের প্রায় ৩৫ শতাংশ রুম বুকিং হয়েছে। আশাকরি এবার প্রচুর পর্যটক বান্দরবানে আসবেন, আর আমরা ভালো ব্যবসা করতে পারব।

বান্দরবানের আবাসিক হোটেল হিলটনের ম্যানেজার মো. আক্কাস বলেন, যে কোন বন্ধে বান্দরবানে প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটে, আশা করছি এবারও বান্দরবানে প্রচুর পর্যটকের দেখা মিলবে, আর পর্যটকদের পর্যাপ্ত সেবা দিতে আমাদের সব রুম নতুনভাবে সজ্জার কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।

হোটেল মোটেলের সঙ্গে সঙ্গে জেলার বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র ভ্রমণের জন্য নতুনভাবে সাজানো হচ্ছে চাঁদের গাড়িগুলো। প্রায় ৩শ চাঁদেরগাড়ি প্রস্তুত রাখা হয়েছে পর্যটকদের জন্য।

বান্দরবান মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. ইকবাল বলেন, আমাদের সব চাঁদের গাড়িগুলো (ট্যুরিষ্টবাহী যান) কাজ করে ফিট রেখেছি, আমরা আশাকরি এই বন্ধে দেশি-বিদেশি পর্যটক বান্দরবানে আসবেন, আর আমরা তাদের বিভিন্ন স্পট ঘুরে দেখাতে সক্ষম হব।

বান্দরবান আবাসিক হোটেল-মোটেল ও রিসোর্ট মালিক সমিতির সভাপতি অমল কান্তি দাশ বলেন, জেলা শহরে নিবন্ধিত ৬৪টি আবাসিক হোটেল-মোটেল ও রিসোর্টে কোরবানির ঈদ ঘিরে এ পর্যন্ত অগ্রিম বুকিং প্রায় ৩৫ শতাংশ।

তিনি আরও বলেন, রুম বুকিং কম হলেও ঈদের দিন ও পরের দিন অনেক পর্যটকের দেখা মিলবে বান্দরবানে।

এদিকে টানা ছুটিতে বেড়াতে আসা পর্যটকরা যাতে নিরাপদে বান্দরবানে ভ্রমণ করতে পারে সেজন্য ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা।

বান্দরবান জোন ট্যুরিস্ট পুলিশের সুপার মো.আব্দুল হালিম বলেন, ঈদের ছুটিতে পর্যটকদের সেবা দিতে জেলার ট্যুরিস্ট পুলিশের সব সদস্যের ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বান্দরবানের সব পর্যটন কেন্দ্রে নিরাপত্তাজনিত কোনো সমস্যা নেই। তারপরও ট্যুরিষ্ট পুলিশ সবসময় তৎপর থাকবে।

তিনি আরও জানান, পর্যটকদের ভ্রমণের বেশিরভাগ পয়েন্টে ট্যুরিষ্ট পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত থাকে। এর বাইরে কোনো পর্যটক সমস্যায় পড়লে ট্যুরিষ্ট পুলিশের সহায়তা নিতে পারবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৭ ঘণ্টা, ৯ জুলাই, ২০২২
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa