ঢাকা, বুধবার, ১২ মাঘ ১৪২৮, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

ডমিঙ্গো ‘বরখাস্ত’, জানেন না মুমিনুল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২১
ডমিঙ্গো ‘বরখাস্ত’, জানেন না মুমিনুল অনুশীলনের মাঝে মুমিনুলের সঙ্গে ডমিঙ্গো/ছবি: শোয়েব মিথুন

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলের বাজে পারফরম্যান্সের পরও রাসেল ডমিঙ্গোর চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোয় বিস্মিত হয়েছিলেন অনেকে। প্রোটিয়া এই কোচকে বরখাস্ত করলে আইনি জটিলতায় পড়ে বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ গুণার শঙ্কায় ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

কিন্তু তাকে বিদায়ের পথ খুঁজে পেয়েছে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। কিন্তু ডমিঙ্গোর পরিণতি সম্পর্কে নাকি জানেন না টাইগারদের টেস্ট দলপতি মুমিনুল হক।

আজ শুক্রবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে ডমিঙ্গোর বরখাস্তের বিষয়ে প্রশ্ন করলে  মুমিনুল বলেন, 'এটা আমি আপনার (প্রশ্নকারী) কাছেই প্রথম শুনলাম যে এ রকম একটা ঘটনা হতে চলেছে। একজন অধিনায়ক হিসেবে, পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে এটা নিয়ে আমার কথা বলা কঠিন। এটা তো বোর্ডের সিদ্ধান্ত, বোর্ড কী করবে। এগুলো নিয়ে আমি কথা বলতেও চাই না। '

ডমিঙ্গোকে 'বরখাস্ত ' করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা অবশ্য এখনও দেয়নি বিসিবি। এমনকি আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরেও দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি। তবে ‘আপৎকালীন' কোচ হিসেবে তিনি থাকবেন দলের সঙ্গে। অবশ্য গত ১ ডিসেম্বর থেকে বিসিবির সঙ্গে তার দুই বছরের নতুন চুক্তি কার্যকর হয়ে যাওয়ার কথা। যে চুক্তির প্রথম এক বছর ‘গ্যারান্টি ড’বলে ডমিঙ্গোকে বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বাধ্যবাধকতাও ছিল বিসিবির। তা না হলে গুণতে হতো এক লাখ ৮৭ হাজার ইউএস ডলার বা প্রায় ২ কোটি টাকার মতো।  

এত ঝামেলা এড়িয়ে যাওয়ার অবশ্য পথ খুঁজে পেয়েছে বিসিবি। বিষয়টি জানিয়েছেন বোর্ডের এক পরিচালক। তিনি বলেন, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমাদের আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত হয়েই নিয়েছি। সে জন্যই চিঠিতে তারিখ ৩০ নভেম্বর দেওয়া। আগের চুক্তির ১৮.১ ধারায় বলা আছে, বিসিবি কোনো কারণ ব্যাখ্যা না করেই তাঁকে যখন-তখন টার্মিনেট করতে পারবে। সে ক্ষেত্রে অবশ্য তাঁকে তিন মাসের বেতন দিতে হবে। আগের চুক্তি অনুযায়ী যে টাকা হয়, তা আমরা তাঁকে দিয়েও দেব। ’

বোর্ডেরই আরেকটি সূত্র অবশ্য মনে করছে যে চাইলে আইনি পথ বেছে নিতে পারতেন ডমিঙ্গোও। যেহেতু আরেকটি নতুন চুক্তিতে তিনি এর মধ্যেই সই করে ফেলেছেন। কিন্তু বর্তমানে তার অবস্থান নড়বড়ে। একে তো তার মাথার ওপর বসানো হয়েছে খালেদ মাহমুদ সুজনকে। অপরদিকে নিউজিল্যান্ড সফরে তার জন্য থাকছে না আগের মতো ব্যবস্থা। আরো অসন্মানজনক পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার আগেই তাই চাকরি হারানোর নিয়তিও মেনে নিচ্ছেন একরকম। সেটি জেনে যাওয়ায় চট্টগ্রাম টেস্টের চতুর্থ দিনের শেষে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে খুব বিমর্ষও দেখাচ্ছিল ডমিঙ্গোকে। তবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসার আগ পর্যন্ত বলা যাচ্ছে না বিষয়টি আসলে কোন দিকে গড়াচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa