ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কলকাতায় চারটি বড় পর্দায় শপথ অনুষ্ঠান

আনোয়ারুল করিম ও রক্তিম দাশ | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৭ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১১

কলকাতা থেকে: মূখ্যমন্ত্রী হিসেবে মমতা ব্যানার্জি ও তার মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠান দেখাতে কলকাতা শহরের ধর্মতলা চত্বরজুড়ে চারটি ‘জায়ান্ট স্ক্রিনের’ ব্যবস্থা করা হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা ব্যানার্জির ইচ্ছাতেই কলকাতা পুলিশ এ ব্যবস্থা করেছে।



সূত্রের খবর, রাজ্যপালের নির্দেশে ঠিক হয়েছে, শহীদ মিনারের উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব এবং পশ্চিম কোণে ওই চারটি স্ক্রিন টাঙানো থাকবে। সব ক’টিরই মুখ থাকবে শহীদ মিনার ময়দানের দিকে।

প্রতিটি স্ক্রিনের মাপ ৯ ফুট উচ্চতা ১২ ফুট প্রস্থের। মাটি থেকে প্রতিটি স্ক্রিনের উচ্চতা হবে ৮ ফুট।

কলকাতা পুলিশ একটি বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমে পর্দা বসানোর কাজ করছে।

মাঠের উত্তরে শহীদ মিনারের নিচে, দক্ষিণে ফ্রেন্ডস ক্লাবের সামনে, পূর্বে নিউ রোডের সামনে ও পশ্চিমে স্পোর্টিং ইউনিয়নের সামনে জায়ান্ট স্ক্রিনগুলো টাঙানো হবে।

শপথ অনুষ্ঠানের চলমান চিত্র ধারণ করবে ভারতের সরকারি গণমাধ্যম দূরদর্শন। তাদের দেওয়া ফুটেজ দেখানো হবে ওই পর্দায়।

জানা গেছে, বড় পর্দা বসানোর জন্য ফোর্ট উইলিয়ামে সেনাবাহিনীর কাছ থেকে শহীদ মিনার ব্যবহারের অনুমতি নেওয়া হয়েছে।

এদিকে বড় পদায় শপথ অনুষ্ঠান দেখানোর সময় কলকাতা পুলিশের ঘোড়সওয়ার বাহিনী সেখানে মোতায়েন থাকবে বলে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বড় পর্দা বসানোর পেছনে একটি ছোট ইতিহাস রয়েছে। মমতা ব্যানার্জি ২০০১ সালের নির্বাচনকালীন বলেছিলেন, ‘আমাদের জয় নিশ্চিত। ব্রিগেড মাঠেই শপথ নেবে মন্ত্রিসভা। ’ অবশ্য সে বছর এবং পরের ২০০৬ সালের নির্বাচনে তার দলের ভরাডুবি হয়। এবার ২০১১ সালে নির্বাচনে জয়ের পর তিনি সে কথা মাথায় রেখেই চেয়েচিলেন ব্রিগেডের মাঠে শপথ নিতে।
কিন্তু আনুষ্ঠানিকতার প্রথার কারণে রাজভবনে শপথ নিচ্ছেন তিনি। এজন্য দলের পক্ষ থেকে রাজভবন সংলগ্ন অঞ্চলজুড়ে বড় পদার এই ব্যবস্থা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৪ঘণ্টা, মে ১৯, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa