ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

পিভিএইচকে বাংলাদেশ থেকে আরও উচ্চমানের পোশাক কেনার আহ্বান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
পিভিএইচকে বাংলাদেশ থেকে আরও উচ্চমানের পোশাক কেনার আহ্বান

ঢাকা: বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) সভাপতি ফারুক হাসান বলেছেন, উচ্চমানের পোশাক সোর্সিং এর জন্য পছন্দের কেন্দ্র হিসেবে বিশ্ব পোশাক বাজারে বাংলাদেশ তার অবস্থান শক্তিশালী করেছে।  

তিনি বিশ্বখ্যাত ফ্যাশন কোম্পানি পিভিএইচকে বাংলাদেশ থেকে উচ্চমূল্যের পোশাকের সোর্সিং বাড়ানোর জন্য আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) ঢাকায় গ্লোবাল সাপ্লাই চেইন, পিভিএইচর এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্ক গ্রিনের সঙ্গে এক আলোচনা বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ব্যবসাকে টেকসই করতে এবং আগামীতে পোশাক শিল্পের প্রবৃদ্ধিকে তরান্বিত করতে বাংলাদেশ আউটারওয়্যার, ওয়ার্কওয়্যার, টেকনিক্যাল অ্যাপারেলস এবং অন্যান্য উচ্চমানের, মূল্য সংযোজিত পোশাক পণ্যগুলোর দিকে নজর দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের কারখানাগুলো ক্রমবর্ধমানভাবে উৎপাদনে আধুনিক ও অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রপাতিগুলোর ব্যবহার বাড়াচ্ছে এবং পণ্যের উদ্ভাবন ও উন্নয়নের জন্য নিজস্ব ডিজাইন স্টুডিও স্থাপন করছে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএর সহ-সভাপতি মিরান আলী, পরিচালক আসিফ আশরাফ এবং পিভিএইচ বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার নাজীব সাঈদ।

তিনি বৈচিত্র্যময় পোশাক তৈরিতে এবং উৎপাদন প্রক্রিয়াকে আরও টেকসই করার ক্ষেত্রে পিভিএইচর বাংলাদেশী পোশাক সরবরাহকারীদের সক্ষমতা বিকাশে পিভিএইচকে তাদের বাংলাদেশী সরবরাহকারীদের সাথে দীর্ঘমেয়াদি অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার জন্য অনুরোধ জানান।

তিনি অভিমত প্রকাশ করে বলেন যে, ‌‘বাংলাদেশ যেভাবে সক্ষমতা বিকাশে অগ্রসর হচ্ছে এবং সেই অনুযায়ী প্রযুক্তি ও যন্ত্রপাতি আপগ্রেড করছে, তাতে করে দেশ বৈচিত্র্যময় পোশাক পণ্যগুলোর জন্য বৈশ্বিক ক্রেতাদের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হবে। এতে করে বাংলাদেশি সরবরাহকারী এবং গ্লোবাল ব্র্যান্ড উভয়ই উপকৃত হবে। ’

প্রসঙ্গত, ক্যালভিন ক্লেইন এবং টমি হিলফিগারসহ বিশ্বব্যাপী আইকনিক ব্র্যান্ডের ফ্যাশন কোম্পানি, পিভিএইচ হলো বিশ্বের বৃহত্তম এবং বিখ্যাত ফ্যাশন কোম্পানিগুলোর মধ্যে অন্যতম।

বাংলাদেশ সময়: ০১১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
এমকে/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।