ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

ক্রিকেট

আশা জাগাচ্ছে অতীত রেকর্ড

ইশতিয়াক হুসাইন, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১০ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৪
আশা জাগাচ্ছে অতীত রেকর্ড

ঢাকা: জয় আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। প্রথম ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারানোর পর দ্বিতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হেসে খেলে হারিয়ে তার প্রমাণও দেখালো ভারত।



কোয়ালিফাইং রাউন্ডে দুর্বল হংকংয়ের কাছে হারার তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে মঙ্গলবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার দশ এ নিজেদের প্রথম খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ।

হারের তেতো স্বাদের সঙ্গে দলের বোলিংয়ের প্রধান অস্ত্র মাশরাফি বিন মুর্তজার ইনজুরি চিন্তায় ফেলেছে স্বাগতিকদের। তাছাড়া স্পিন সহায়ক পিচে সাকিব ছাড়া নিজের সামর্থের প্রমাণ দিতে পারেননি দলের নির্ভরযোগ্য স্পিনার আবদুর রাজ্জাক।

অথচ এ পিচের পুরো সুবিধাই নিচ্ছে ভারতীয় শিবির। স্পিন সহায়ক পিচের সুবিধা নিয়ে পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো শক্তিশালী দলকে সহজেই হারিয়েছে তারা।   

স্বাগতিক বাংলাদেশ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যখন মিরপুর শের-ই বাংলা স্টেডিয়ামে লড়াইয়ে নামবে তখন এসব নেতিবাচক দিক নিশ্চয়ই ভাবাবে খেলোয়াড়দের।

তবে দেয়ালে পিঠ গেলে ঘুরে দাঁড়ায় টাইগাররা এমনটিই সাক্ষ্য দেয় ইতিহাস।  

এবারো সেরকমই একটি ‘টনিক’র আশা করছেন দর্শকরা। নিকট অতীতে হংকংয়ের কাছে হারের যেমন খারাপ নজির রয়েছে তেমনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জয়ের রেকর্ডও আছে। জোহানেসবার্গের ওই রেকর্ড আশা জাগাচ্ছে বাংলাদেশ দলকে।

যদিও ২০০৯ সালে সেন্ট কিটসে জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০১১ সালে দেশের মাটিতে ইন্ডিজকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। পরের বছর আবার স্বাগতিকদের হারায় ক্যারিবিয়ানরা। জয়-পরাজয়-জয়-পরাজয়। এই দোলাচলের খেলায়ও এবার বাংলাদেশের জয়ের পালা।

এতসবের পরেও ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং লাইন আপ কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলে দেওয়ার মতো। ওপেনার ক্রিস গেইলের ব্যাটিং তাণ্ডব ভাবাচ্ছে টাইগারদের। এক গেইলই বোলারদের চিড়েচ্যাপ্টা করে দিতে যথেষ্ট।

টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি ৩২ ছক্কার অধিকারী গেইল। সঙ্গে থাকবে সুনীল নারাইন ও স্যামুয়েল বদ্রির মতো বোলার। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ৫.০৩ বোলিং গড়ে বদ্রির ইকোনমি রেট সেরা।   উপমহাদেশের কন্ডিশনে সে কার্যকর হবে একথা নির্দ্ধিধায় বলা যায়। কম যান না ডান হাতি মিডিয়াম ফাস্ট বোলার ড্যারেন সামিও।

তবে ভারতের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্পিন দুর্বলতাও স্পষ্ট হয়ে ধরা পড়েছে। ক্যারিবিয়ান কোচ ওটিস গিবসন অবশ্য জানিয়েছেন, তারা স্পিন দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে কাজ করেছেন। বাংলাদেশও ক্যারিবীয়দের মূল ব্যাটিং শক্তি নিঃষেশের সব পরিকল্পনাও এঁটেছে।

গেইল ঝড় থামাতে মঙ্গলবার মাঠে নামানো হতে পারে সোহাগ গাজীকে। ২০১২ সালে টি-টোয়েন্টি, একদিনের আন্তর্জাতিক এবং টেস্টে ক্রিস ৯ বার আউট হয়েছেন। এর মধ্যে সোহাগই তাকে তিনবার আউট করেছেন। তাই সোহাগকে দলে নিয়ে গেইলের ওপর বাড়তি চাপ তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে অধিনায়ক মুশফিকের।

দু’দলের মোকাবেলায় পরিসংখ্যানে সবচেয়ে এগিয়ে থাকা খেলোয়াড়ের নাম বাংলাদেশের এনামুল হক। ওপেনার এনামুল হক বিজয়ের সবগুলো ছক্কাই দেশের মাটিতে। হোমগ্রাউন্ডে বিজয়ের স্কোর সব সময়ই ২০ রানের ওপরে, যা তাকে দেশের মাটিতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হিসেবে দাঁড় করিয়েছে। মোট ৪৩.২ ব্যাটিং গড় নিয়ে এনামুল করেছেন ২১৬ রান, স্ট্রাইক রেট (১৩৭.৬)।

দলের নির্ভরযোগ্য অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বল-ব্যাট দু’দিক থেকেই ভালো ফর্মে রয়েছেন। সময়মতো এদের জ্বলে ওঠার অপেক্ষাতেই এখন বাংলাদেশ অধিনায়ক।           

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০১৪

** যেকোনো দলকে হারাতে প্রস্তুত টাইগাররা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa