ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

আম্পায়ার নাদির শাহ ক্যান্সার আক্রান্ত’, দোয়া চাইলেন খালেদ মাসুদ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১
আম্পায়ার নাদির শাহ ক্যান্সার আক্রান্ত’, দোয়া চাইলেন খালেদ মাসুদ

সাবেক ক্রিকেটার ও আম্পায়ার নাদির শাহ ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেখান থেকেই লাইভে তার জন্য দোয়া চাইলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট।

অসুস্থ নাদির শাহর জন্য দোয়া চেয়ে ফেসবুক লাইভে খালেদ মাসুদ বলেন, ‘রাজশাহীতে থাকার সময় জানতে পেরেছিলাম যে আমাদের সিনিয়র ক্রিকেটার ও আম্পায়ার নাদির (শাহ) ভাই অসুস্থ। উনি হাসপাতালে আছেন। নাদির ভাইয়ের সঙ্গে আমার খেলার সৌভাগ্য হয়েছে। আমাদের অনেক খেলোয়াড় খেলেছে। তিনি একজন সাবেক খেলোয়াড়, তার বড় ভাই বাদশাহ ভাইও অসাধারণ ক্রিকেটার ছিলেন। আমরা ছোটবেলা থেকে তাদের নাম শুনতাম। ’

খালেদ মাসুদ আরো বলেন, ‘নাদির ভাই ছিলেন অসাধারণ স্মার্ট প্লেয়ার, ভালো ব্যাটিং করতেন। ভালো বোলিংও করতেন। খেলোয়াড় ও বড় ভাই হিসেবে আমরা তাকে শ্রদ্ধা করতাম। মানুষ হিসেবে তিনি ছিলেন অসাধারণ মনের। আমার মনে হয়, নাদির ভাইয়ের আম্পায়ারিংয়ে খেলেছেন তারা কেউ কোনোদিন তাকে নিয়ে কটূক্তি কিংবা সমালোচনা করেননি। কেউ ভুল করলে তাকে শুধরে দিতেন। ’

চিকিৎসাধীন নাদিরকেও লাইভে আনেন খালেদ মাসুদ। নাদির বলেন, ‘আমার শরীর কিছুদিন ধরে খারাপ। আমি হাসপাতালে আছি। আগের থেকে ভালো আছি। আপনারা দোয়া করবেন যেন আমি ভালো হয়ে যাই। আবার যেন মাঠে এসে আম্পায়ারিং করতে পারি। ইনশাল্লাহ আগের থেকে ভালো আছি। শুধু আমার জন্য দোয়া করবেন। ধন্যবাদ, আল্লাহ হাফেজ। ’

নাদিরের কথা শেষ হতেই খালেদ মাসুদ বলেন, ‘নাদির ভাই কী শক্তিশালী, কী প্রাণবন্ত। আমাকে এখনই তিনি বলছেন, আমরা রাতে যেখানে ফুটবল খেলি সেখানে রেফারিং করবেন। যারা তাকে চেনেন, তারা জানেন, তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেটকে অনেক কিছু দিয়েছেন। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন। ‘

দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের ক্যানসারে ভুগছেন নাদির শাহ। ২০১৯ সালের অক্টোবরে জাতীয় লিগের ম্যাচ পরিচালনা করার সময় মাঠেই হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তার ফুসফুসে ধরা পড়ে ক্যানসার। এরপর থেকেই চলছে চিকিৎসা। তবে তার শারীরিক অবস্থা অনুযায়ী, এই ক্যানসার আর নিরাময়যোগ্য অবস্থায় নেই। তাকে চলাফেরা করতে হচ্ছে হুইলচেয়ারে। মাঝে এই আইসিসির প্যানেল আম্পায়ারকে চিকিৎসার প্রয়োজনে যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতেও নেওয়া হয়েছিল।

নাদির শাহর অবস্থা এখনই সংকটাপন্ন না হলেও খাওয়া না করতে পারায় প্রোটিনের অভাব দেখা দিয়েছে তার শরীরে। ফলে তিনি অত্যন্ত দুর্বল হয়ে পড়েছেন। জীর্ণ-শীর্ণ শরীর, হাত ও পা শুকিয়ে গেছে। এর আগে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। এমনকি তাকে আম্পারিংয়ে ফেরার পরামর্শও দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু খাওয়া-দাওয়া না করতে পারায় তার অবস্থা আগের চেয়ে দুর্বল হয়ে পড়েছেন তিনি।  

আইসিসি প্যানেলভুক্ত আম্পায়ার নাদির ৬টি টেস্ট, ৬৩টি ওয়ানডে ও ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। সর্বশেষ ২০১৯ সালের অক্টোবরে জাতীয় ক্রিকেট লিগে ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০১, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa