ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আশ্বিন ১৪৩০, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ইটভাটায় লুটপাট ও চাঁদাবাজি, গ্রেফতার ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩০ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০২৩
ইটভাটায় লুটপাট ও চাঁদাবাজি, গ্রেফতার ২

চট্টগ্রাম: সাতকানিয়ায় ইটভাটায় লুটপাট ও চাঁদাবাজির অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭।  

মঙ্গলবার (৩০ মে) রাতে নগরের লালদিঘীর পাড় এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতাররা হলো- বাঁশখালীর পালেগ্রামের মো. তৈয়বের ছেলে মোহাম্মদ নোমান (৩৫) এবং সাতকানিয়ার ছনখোলা এলাকার আলতাফ হোসেনের ছেলে মমতাজ উদ্দিন (৪০)।  

র‍্যাব জানায়, ভুক্তভোগী আনসারুল হক এবং তার বন্ধু কামাল উদ্দিনসহ আরো কয়েকজন যৌথভাবে সাতকানিয়া এসএমবি (শাহ মাজিদিয়া ব্রিকস) নামে ইটভাটা পরিচালনা করতেন।

আসামি মোহাম্মদ নোমান এবং মমতাজ উদ্দিন তাদের কাছে ১০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় ইটভাটা মালিকদের প্রাণনাশের হুমকি দিতো। গত ২৩ মে দুপুরে  আসামিরা ইটভাটার ম্যানেজার এবং কর্মচারীদের লোহার রড ও লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর আহত করে তাদের অফিস হতে বের করে দেয়। এ সময় আনসারুল হক এবং তার বড় ভাই বাধা দিলে তাদেরকেও মারধর করে। এ সময় আনসারুল হকের এক লাখ টাকা এবং অফিসের ইট বিক্রির ৫ লাখ টাকা নিয়ে নেয়। এছাড়া ৫০ থেকে ৬০টি ডাম্পার ট্রাক গাড়ি এনে দুই লাখের বেশি ইট নিয়ে যায় ও ইটভাটায় ব্যাপক ভাঙচুর চালায়।    

এ ঘটনায় ভিকটিম আনসারুল হকের স্ত্রী বাদী হয়ে  সাতকানিয়া থানায় ২১ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেন।

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) নুরুল আবছার বলেন, ইটভাটার মারধর ও লুটপাটের ঘটনায় আনসারুল হকের স্ত্রী বাদী হয়ে সাতকানিয়া থানায় মামলা করেন। মামলায় দায়েরের পর তদন্তে নেমে র‌্যাব নগরের লালদিঘী এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রধান দুই আসামি নোমান ও মমতাজকে গ্রেফতার করে।  

বাংলাদেশ সময়: ২১১৫ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০২৩
পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa